অনলাইন ডেস্কঃ

ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে অ্যাম্বুলেন্স না পেয়ে মায়ের লাশ মোটরসাইকেলে করে শ্মশানে নিয়েছে তার দুই ছেলে। তার করোনার উপসর্গ থাকায় পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন। তবে, রিপোর্ট আসার আগেই তিনি মারা যান।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীকুলম জেলার মন্দাসা মণ্ডল গ্রামে ওই নারী বাড়ি। বেশ কিছুদিন ধরে করোনার নানা উপসর্গ দেখা দিয়েছিল তার। এরপর করোনা পরীক্ষা করান তিনি। তবে, রিপোর্ট আসার আগেই তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকলে শেষ পর্যন্ত মৃত্যু হয়।

এরপর মহিলার দেহ সৎকারের জন্য বিভিন্ন হাসপাতালে অ্যাম্বুলেন্সের খোঁজ শুরু হয় পরিবারের। তবে কোনও ভাবেই একটি অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করতে পারেননি পরিবারের সদস্যরা। এমনকি, অন্য কোনও গাড়ির মাধ্যমে দেহ শ্মশানের নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করা যায়নি। শেষ পর্যন্ত ওই মহিলার দেহ বাইকে করে শ্মশানে নিয়ে যান তার ছেলে এবং জামাই।

ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩ লাখ ২৩ হাজারের বেশি মানুষের দেহে মহামারি করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। ভারতে এ পর্যন্ত ১ কোটি ৭৬ লাখের বেশি মানুষের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। আর মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৯৭ হাজার ৮৯৪ জনের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *