মিরু হাসান বাপ্পী
আদমদিঘী (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে আগামী ১৪ থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত কঠোর বিধি-নিষেধ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার সোমবার (১২ এপ্রিল) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এই প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। এই বিধি-নিষেধ চলাকালে নির্দিষ্ট সময়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য এবং খাবার বেচাকেনা করা যাবে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, খাবারের দোকান ও হোটেল-রেস্তোরাঁয় দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা এবং রাত ১২টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত কেবল খাদ্য বিক্রয় এবং সরবরাহ (সরাসরি ও অনলাইন) করা যাবে। তবে শপিংমলসহ অন্যান্য দোকান বন্ধ থাকবে।

চলতি মাসে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে গেলে কঠোর বিধি-নিষেধ আরোপের সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। জরুরি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান ও সংস্থা ছাড়া সরকারি-বেসরকারি সব অফিস বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়।

গত শুক্রবার সকালে এক ব্রিফিংয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘দেশে করোনা ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার। কিন্তু এতেও জনগণের উদাসীনতা কমেনি। এ অবস্থায় জনস্বার্থে সরকার আগামী ১৪ এপ্রিল থেকে এক সপ্তাহের জন্য সর্বাত্মক লকডাউনের বিষয়ে সক্রিয় চিন্তা ভাবনা করছে।’

এ বিষয়ে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘জরুরি সেবা ছাড়া, সব ধরনের অফিস আদালত, গণপরিবহন, দোকানপাট, মার্কেট সব কিছুই বন্ধ থাকবে। সবকিছু কঠোর লকডাউনের আওতাধীন থাকবে। শিল্প-কারখানাগুলোও বন্ধ থাকবে। মানুষ যে যেখানে আছেন, সেখনেই থাকবেন। এটা কঠোর লকডাউন হবে।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *