মিরু হাসান বাপ্পী
আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি:

গতকাল (১৭ মার্চ) বগুড়ার আদমদীঘি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আয়োজিত বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবসের অনুষ্ঠানে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহবুবা হক স্যান্ডেল পায়ে উপস্থিত থাকায় জনগণের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। এ প্রসঙ্গে এসিল্যান্ড দাবি করেছেন, তিনি অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার কারণে স্যান্ডেল পায়ে শহীদ মিনারের বেদিতে আয়োজিত অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন। তবে তিনি এ ব্যাপারে দুঃখ প্রকাশ বা আর কোনও মন্তব্য করতে রাজি হননি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বগুড়ার বিভিন্ন উপজেলার মতো আদমদীঘি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবসের আলোচনা সভা এবং পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম খান রাজু প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সীমা শারমিনের সভাপতিত্বে এসিল্যান্ড মাহবুবা হক, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবু রেজা খান ও নাজিমুল হুদা খন্দকার, যুগ্ম সম্পাদক সাজেদুল ইসলাম চম্পা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সেখানে সকল অতিথি খালি পায়ে কিংবা মোজা পায়ে মঞ্চে উঠলেও এসিল্যান্ড মাহবুবা হক তার পা থেকে স্যান্ডেল খোলেননি। তিনি উল্টো ছবি তোলার সময় দাঁড়ানো নিয়ে অন্যদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন।

আলোচনা সভা শেষে প্রধান অতিথি চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।

এদিকে এসিল্যান্ড মাহবুবা হক স্যান্ডেল পায়ে শহীদ বেদির মঞ্চে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকায় উপস্থিত সকলের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।

এ প্রসঙ্গে এসিল্যান্ড মাহবুবা হক বলেন, তিনি সাতমাসের অন্তঃসত্ত্বা, তাই স্যান্ডেল পায়ে মঞ্চে ছিলেন। তিনি এ উপজেলায় তার অনেক কর্মকাণ্ডের বর্ণনা দিলেও পবিত্র শহীদ মিনারে স্যান্ডেল পায়ে ওঠার ব্যাপারে দুঃখ প্রকাশ করেননি। এ ব্যাপারে পত্রিকায় না লিখতে পরামর্শ দেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সাজেদুল ইসলাম চম্পা জানান, এসিল্যান্ডের স্যান্ডেল পায়ে শহীদ মিনারে ওঠার বিষয়টি সকলে অবগত আছেন। এতে অনেকের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হলেও প্রকাশ্যে কিছু বলেননি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সীমা শারমিন জানান, এসিল্যান্ড অসুস্থ তাই হয়তো ভুলে স্যান্ডেল পায়ে মঞ্চে উঠেছেন।

উপজেলা চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা সিরাজুল ইসলাম খান রাজু জানান, শহীদ মিনারে জুতা-স্যান্ডেল পায়ে ওঠা কারো ঠিক নয়। এসিল্যান্ড এ কাজ করে থাকলে ভুল করেছেন। বিষয়টি তিনি দেখবেন বলে জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *