ফরিদুল ইসলাম নয়ন, নারায়ণগঞ্জ সদর প্রতিনিধি: আপনাদের এখানের যে সংসদ সদস্য রয়েছে সে আপনাদের চাহিদা, প্রয়োজন যা আপনাদের অধিকার তা পুরণ করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। আপনাদের কাছে আমার অনুরোধ , আপনারা আপনাদের গলার সর কে উচু করবেন আপনাদের চাহিদা পুরণ করার জন্য। যারা আপনাদের চাহিদা পুরণ করতে বাধ্য, তাদের কান পর্যন্ত যাতে আপনাদের কন্ঠ পৌছায় সেই সে ভাবে আপনাদের সর উচু করবেন, আপনার ব্যাক্তিগত কাজের জন্য নয় আপনার এলাকার জন্য।
শনিবার (২৩ই জানুয়ারী) বিকেলে ফতুল্লা থানাধীন ধর্মগঞ্জ চটলার মাঠ এলাকায় কালের কন্ঠ’র শুভ সংঘ এর উদ্যোগে কম্বল বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমানের সহধর্মিনী ও নারায়ণগঞ্জ জেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান সালমা ওসমান লিপি এসব কথা বলেন।

সালমা ওসমান লিপি বলেন, এই প্রথম আমি কোন পাবলিক প্লেসে এসেছি আপনাদের মাঝে, এর আগে আমি কখনো আসি নাই। এইযে আপনারা এভাবে দাঁড়িয়ে আছেন আপনারা আপনাদের কি ভাবেন তা আমি জানি না, কিন্তু আমি আপনাদের ভাবি শক্তিশালী জনগনের একটি অংশ। নির্বাচনে সময় আমরা মানুষের ঘরে ঘরে গিয়েছি, তাদের সমস্যার কথা শুনেছি, তাদের প্রয়োজনের কথা শুনেছি। আপনাদের কি প্রয়োজন তা আপনারা নির্ধারন করবেন, আপনারা মনে রাখবেন আপনারা একদম কমজোড় না। আমাদের কোরআনে অনেক ভালো করে অনেক কথা লেখা আছে আমাদের সেগুলো পড়া উচিত। আমরা যখন বলি আমরা কোন কাজে ব্যর্থ, তখন আল্লাহ উত্তর দেন বিশ্বাসিরা সফলকাম হয়। আপনারা যখন বলেন আমার অনেক কষ্ট, আল্লাহ কাউকে কষ্টে থাকতে দেন না, কষ্টের পর অবশ্যই সুখ প্রদান করেন। এবং যারা বলেন আমার সাহায্যকারী কেও নাই, তখন আল্লাহ বলেন নিশ্চই মুমিনদের সাহায্যকারী আমি। কোরআনের আয়াত কখনো মিথ্যা হতে পারে না তাই আপনারা আপনাদের কখনো কমজোড় মনে করবেন না।

সালমা ওসমান লিপি আরো বলেন, আপনাদের কাছে আমি সবসময় থাকতে চাই, চেষ্টা করেছি থাকতে। আল্লাহ যত দিন বাঁচিয়ে রাখেন ততদিন কোন পদ পদবি ছাড়াই যাতে আপনাদের সাহায্যে এগিয়ে আসতে পারি। করোনাকালীন সময়ে যখন আমি এ কাজ গুলি করি তখনই আমি করেনায় আক্রান্ত হই। আমি যা করি যতটুকু করি সবই আল্লাহর জন্য। যদি একটি মানুষের মুখেও স্বস্তির হাসি ফুটাতে পারি তাহলে আমি মনে করবো আমার জীবন স্বার্থক। অনেকে বলে নারায়ণগঞ্জে নাকি প্রথমে করোনা সংক্রামন হয়েছে, এখান থেকেই নাকি করোনা সারা দেশে ছড়িয়েছে। কিন্তু সারা বাংলাদেশের মধ্যে নারায়ণগঞ্জে কিভাবে সংসদ সদস্য, ‍উপজেলা পরিষদ মানুষের প্রয়োজনে ঝাঁপিয়ে পরেছে এটা একটি উদাহরন হয়ে দাঁড়িয়ে আছে।

নারায়ণগঞ্জের সকল মিডিয়া কর্মীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, অনেক গনমাধ্যম কর্মীরা করোনাকালীন সময়ে বাসা থেকে কাজ করতে বেরিয়ে প্রচুর ঝুকি নিয়েছে তারা। মানুষের কষ্ট, মানুষের প্রয়োজন সকলের কাছে তুলে ধরতে গিয়ে তারা নিজেরা অনেক ঝুকির মুখে ছিলো। তারা তাদের কষ্টের কথা পত্রিকায় ছাপাতে পারে নাই। এই কারনে সকল গনমাধ্যমকে আমি আমার অন্তরের অন্তস্থল থেকে দোয়া এবং শ্রদ্ধা জানাচ্ছি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদা বারিক, ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসলাম হোসেন এবং এনায়েতনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামানসহ উক্ত এলাকার আরো অনেক গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *