মো:মিজানুর রহমান (আবির)
ফতুল্লা সদর থানা প্রতিনিধি:

ঢাকা নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড থেকে চলন্ত ইজিবাইক থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে হত্যার ঘটনায় মামলা করা হয়।
বুধবার ২জুন সন্ধায় নিহত দুলালের বাবা আব্দুল হাফিজ সাহেব বাদী হয়ে প্রথম স্ত্রীর বিরুদ্ধে ফতুল্লা থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

নিহত ইয়াসিন দুলাল বরিশাল জেলার মেহেন্দিগঞ্জ থানার চরফেনুয়া গ্রামে র আব্দুল হাফিজ রাড়ির ছেলে ও ফতুল্লা থানার গেইটের বিপরীতে একটি মোবাইল কোম্পনিতে কাজ করতো । নিহত ইয়াসিন দুলাল ফতুল্লা থানা গেইট সংলগ্ন ইসরাফিল সরকার রোডে দারোগার বাড়িতে ভাড়ায় বসবাস করতো।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০২০সালের এপ্রিল মাসে বরিশাল জেলার মেহেন্দিগঞ্জ থানার বাহেরচরের গ্রামে র ওয়াজেদ গাজীর কন্যা ও ঢাকা মুগদা হাসপাতালের আয়া আয়শা আক্তার কে (২৬) বিয়ে হয়।
তার ছেলের সাথে বিয়ের আগে আরো একটি বিয়ে হয় আয়েশা আক্তারের। সেই ঘরে একাধিক সন্তান ও রয়েছে তার। বিয়ের পর থেকে তার ছেলের সাথে আয়েশা আক্তারের বনিবনা হচ্ছিল না। তার ছেলের সাথে সংসার করা কালীন সময়ে আয়েশা আক্তার তার আগের বরের সাথে সম্পর্ক অক্ষুন্ন রেখেছেন। এ নিয়ে নানান অশান্তি বিরাজ করতো তাদের সংসারে। এক সময় দুলাল ফতুল্লা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করে ২০২০সালের ২২ সেপ্টেম্বর। এর পরপরই কিছুদিন পর আয়েশা আক্তার তালাকের জন্য চাপ দেয়, ২০২০সালের ২৭ সেপ্টেম্বর তালাক প্রদান করতে বাধ্য হয় ইয়াসিন দুলাল। এরপর থেকে আয়শা আক্তার ফন্দি করেন দুলালে মারার জন্য।

গত ৩১ মে রাতে বিবাদি আয়েশা আক্তার ভূইঘর কড়ইতলা নারায়ণগঞ্জ -ঢাকা মহাসড়ক এ একটি ইজিবাইক থেকে দুলালে ফেলে দেয়, এইসময় দুলাল কাভাড ব্যানের নিচে চাপা পড়ে নিহত হয়।

এ বিষয়ে ফতুল্লা থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি রকিবু জামান জানান, নিহত ইয়াসিন দুলালের পিতা আব্দুল হাফিজ সাহেব মামলা করেছেন সন্ধায়, আয়েশা আক্তারের নামে –
আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *