বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ

দিনাজপুরের বিরামপুর পৌরসভা (প্রথম শ্রেণী) নির্বাচনে পৌর মেয়র অধ্যক্ষ আককাস আলী নির্বাচিত হওয়ার পর দায়িত্ব পালন প্রায় সাত মাস হতে চলেছে। এই অল্প সময়ের মধ্যে নিজেকে আলাদাভাবে পৌরবাসীর কাছে তুলে ধরতে সক্ষম হয়েছেন তিনি।

বিরামপুর পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেয়ে নির্বাচনে জয়ী হয়েই উন্নয়নের পরিকল্পনা ও নানা ভোগান্তি থেকে বিরামপুর পৌরবাসীকে মুক্তি দিতে দিনরাত নিরালস ভাবে ছুঁটে চলেছেন তিনি। পৌর পরিষদের কাউন্সিলর দের সাথে নিয়ে তদারকি করছেন বিরামপুর পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডের পাড়া মহল্লার উন্নয়ন মূলক কাজ।

বিরামপুর পৌরসভা বিগত দিনের ময়লা আবর্জনার স্তূপ থেকে বেরিয়ে আসতে শুরু করেছে। বর্তমানে পৌর এলাকা তৈরী হয়েছে পরিচ্ছন্ন ও ঝকঝকে এক নতুন শহর। ড্রেনেজ সমস্য সমাধানের মাধ্যমে জলাবদ্ধতা পরিস্থিতির উন্নয়ন,পৌর শহরের রাস্তাঘাটের সংস্কার, মাছ বাজার, কাঁচা বাজার ও ঐতিহ্যবাহী পশুহাট পাকাকরণ, মহাসড়কের ডিভাইডারের মাঝে শহরের সৌন্দর্য বর্ধনে ফুলের চারা রোপন ও বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের মধ্য দিয়ে তার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতির প্রতিফলন ঘটছে। প্রমাণ মিলছে উন্নয়ন ও জনকল্যাণে তার আন্তরিকতার।

গত ৩০ জুন বিরামপুর পৌরসভার উন্নয়নের জন্য প্রায় ৪৪ কোটি টাকা বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। বাজেটে উন্নয়ন খাতে বরাদ্দ ধরা হয়েছে প্রায় ৩৫ কোটি টাকা। সরকারের পক্ষ থেকে মোটা অঙ্কের বরাদ্দ না মিললেও পৌরসভার নিজ অর্থায়নে জলাবদ্ধতা নিরসনে ড্রেনেজ ব্যবস্থা ও রাস্তাঘাটের উন্নয়ন কাজ অব্যহত রয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে বড় ধরনের বরাদ্দ মিললে বিরামপুর শহরের রাস্তাঘাট ভাঙা থাকবে না।

জানতে চাইলে, পৌর মেয়র অধ্যক্ষ আককাস আলী বলেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক এর দিকনির্দেশনায় পৌরবাসীর জনমানুষের ভাগ্য উন্নয়নে চেষ্টা ও তার সুদূরপ্রসারী উন্নয়ন পরিকল্পনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি। পরিকল্পিত ভাবে পৌর শহরে বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ চলমান রয়েছে। সবার সহযোগিতায় আগামীতে আরো সমৃদ্ধি ঘটবে।

তিনি আরো বলেন, বিরামপুরবাসী আমাকে সম্মান দিয়েছেন। এ সম্মানের প্রতিদানস্বরূপ বিরামপুর শহরকে ঢেলে সাজাব। যতটুকু বিচক্ষণতা রয়েছে তার সঙ্গে নেতাদের দিকনির্দেশনা আর সুপরামর্শের ভিত্তিতে সফলতার স্বাক্ষর রাখতে পারব বলেই আমি আশাবাদী। সেই পথচলার প্রথম ধাপ হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশীর্বাদে আমি মেয়র হয়েছি। আমার দৃঢ় বিশ্বাস বিরামপুর পৌরবাসী তাদের ভালোবাসা দিয়ে আগলে রাখবেন আমাকে।

এদিকে পৌরবাসীরা জানান, পৌর মেয়র আককাস আলী দায়িত্ব গ্রহণের পর তার কর্মতৎপরতায় পৌরবাসী বেশ খুশি। পৌর শহরকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন, ড্রেনেজ ব্যবস্থা ও পৌর নাগরিকদের সেবা দানে যে পরিকল্পনা নিয়ে এগুচ্ছেন তাতে শিগগিরই বর্তমান মেয়র এর হাত ধরেই আধুনিক সেবাসমৃদ্ধ ডিজিটাল বিরামপুর পৌরসভা হবে বলে পৌরবাসীদের বিশ্বাস।

Leave a Reply