মো. নুর হোসাইন, নকলা (শেরপুর) প্রতিনিধি:

শেরপুরের নকলা উপজেলার
চন্দ্রকোনায় জুতা আনতে গিয়ে মৃগী নদীর পানিতে ডুবে সোহরাব আলী (৫৫) নামে এক কৃষি শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। সে উপজেলার চন্দ্রকোনা ইউনিয়নের বাছুরআলগা গ্রামের মৃত অনু শেখের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রোববার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে সোহরাব আলী, তার ভাই তোরাব আলী (৫০) সহ অজ্ঞাত আরও একজন কৃষি শ্রমিক পায়ে হেটে মৃগী নদী পাড় হওয়ার সময় নদীর মাঝ পথে সোহরাব আলীর হঠাৎ মনে পড়ে সে ওইপাড়ে তার জুতা রেখে এসছেন। এমতাবস্থায় তোরাব আলী ও অজ্ঞাত শ্রমিক পাড়ে ওঠে আসে। কিন্তু সোহরাব আলী ফিরে গিয়ে জুতা নিয়ে আসার সময় আগের পথে না এসে কয়েকগজ পূর্বপাশ দিয়ে আসে। এসময় সে গভীর গর্তে তলিয়ে নিখোঁজ হয়।

জানা গেছে, নিখোঁজের স্থানে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু তুলার কারনে গভীর গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় সাঁতার না জানা সোহরাব আলী তলিয়ে যায়। পরে সোহরাব আলীর ভাই তোরাব আলীর ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা এসে প্রায় ৩ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে অবশেষে জালটেনে সোহরাব আলীকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করেন।

স্থানীয়রা জানান, পানিতে ডুবে নিখোঁজ হওয়ার পরে প্রায় ৩ঘন্টা গত হলেও অজ্ঞাত কারনে দমকল বাহিনীকে খবর দেওয়া হয়নি। চন্দ্রকোনা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের আইসি আবুল হাসিম নিহতের বিষয় নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নিহতের ভাইসহ আরও এক কৃষি শ্রমিক সাথে থাকায় এবং প্রত্যক্ষদর্শীদের ভাষ্য অনুযায়ী সোহরাব আলী পানিতে ডুবে নিহত হয়েছেন। তাই এবিষয়ে অপমৃত্যুর মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *