মিরু হাসান বাপ্পী
বগুড়া প্রতিনিধিঃ

বগুড়ায় একাধিক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক থাকা নাট্য অভিনেতা ও নাশকতার মামলায় পলাতক বিএনপি নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন ৪টি চেক প্রতারণা ও অর্থ আত্মসাৎ এর মামলায় সাজাপ্রাপ্ত নাট্য অভিনেতা জাকির হোসেন রুপক (৫৫)। তিনি শহরের সুত্রাপুর এলাকার মৃত মনোয়ার হোসেন এর ছেলে। ৪টি মামলায় ১০ বছর পলাতক ছিলেন তিনি।

এছাড়াও অর্থ আত্মসাৎ এর অপর এক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত ও নাশকতা ভাংচুর মামলা সহ ৮টি গ্রেফতার পরোয়ানা থাকা এরুলিয়া ইউনিয়ন বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাইসার মোর্তজা (৩২)। তিনি এরুলিয়া উত্তরপাড়া ছামছুদ্দীন মন্ডলের ছেলে।

সদর থানা পুলিশ শনিবার সন্ধ্যায় রূপককে তার ভাড়া বাসা পল্টন এলাকা থেকে ও কাইসারকে ফকিরাপুল তার অফিস থেকে স্থানীয় পুলিশের সহযোগীতায় গ্রেফতার করে।

বগুড়া সদর থানার ওসি সেলিম রেজা ও এসআই জাকির আল-আহসান জানান, নাট্য অভিনেতা রুপক শহরের মফিজ পাগলার মোড়ের একটি ফটো স্টুডিও ও একটি এনজিও থেকে ২০ লক্ষ টাকা নিয়ে পালিয়ে যান।

ভুর্তভূগীরা মামলা করলে আদালত রুপমকে ৪টি মামলায় মোট সাড়ে ৪বছর সাজা দিয়ে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেন৷

অপরজন, এরুলিয়া ইউনিয়ন বিএনপির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ইউনিয়ন ছাত্রদল সভাপতি। তিনি একটি মটরসাইকেল শো-রুম থেকে বাকিতে কিনে পরে টাকা পরিশোধ না করে পালিয়ে যান।

এতে ওই মটরসাইকেল শো-রুমের মালিক তার বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ ও প্রতারণা মামলা করলে আদালত তাকে ১বছরের সাজা দিয়ে গ্রেফতারি পয়োয়ানা জারি করেন। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে নাশকতা ভাঙচুর সহ মোট ৮টি মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা আছে৷

বগুড়া জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল ও মিডিয়া মুখপাত্র) ফয়সাল মাহমুদ জানান, গ্রেফতাকৃতরা দীর্ঘদিন পলাতক ছিল। তথ্য প্রযুক্তি সাহায্য আমরা তাদের গ্রেফতার করেছি। আগামীতেও এই ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে৷

Leave a Reply