ম.ম.রবি ডাকুয়া
———————-
সেদিনও মসজিদ থেকে আজান মন্দির থেকে শঙ্খ ধ্বনী,
নমনম কানে সুর ভেসে এসে মম,
আল্লাহু আকবর মুখর ছিল।
এমনি ছায়াছবির মত চলেছে সব,
শুধু মাটিতে পড়ে থাকা নিথর তোমার শব,
মাটি ছিলনা ভূপৃষ্ঠে,সাড়ে সাত কোটি বাঙ্গালীর বুক,
আজ যা ষোল কোটি,
সেদিন ওরা তোমাকে মারেনি,
হত্যা করেছে সবশেষ বাংলাকে।
তোমার কবর সেদিন কবর ছিলনা
সাড়ে সাত কোটি মাথার মুকুট,
পনেরো কোটি চোখ থেকে উপড়ে ফেলা স্বপ্ন,
সেই বিষাদের লগ্ন।
তোমার নাম বাংলাদেশ,
তুমি বাঙ্গালির স্বপ্ন সবশেষ।
তোমাকে শ্রদ্ধা অশেষ,
তুমি সেই জ্যোতির্ময় এক পথিক,
সেদিনের তোমার ডাকে স্বাধীন দেশ স্বাগতিক,
তুমি ভালবাসা ছড়িয়ে গেলে জাগতিক।
সেদিনের কান্নায় একশ চুয়াল্লিশ ধারা ছিল,
মনে তবু তার স্রোতধারা ছিল।
সেদিনও অস্তিত্বহীন পাকিস্তান ছিল,
বাংলাদেশ খোলসের ভিতরে,
সেদিনও বাংঙ্গালি কেঁদেছিল কাতরে।
আজও সেই কান্না ঢেউ
পাড় ভাঙ্গে সব বাঙ্গালির হৃদয়ে কেউ।
আজও অবেলা তোমার প্রতি কাঁদে
আমার সেদিনের অবহেলা।
তুমি ছাড়া এখনো অসম্পূর্ণ বাংলাদেশ,
ভূবনময় কাঁদে তাই সব বাংঙ্গালির হৃদয়ের তলদেশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *