আব্বাস আলী, ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি :

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার দশম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে ধর্মগুরু পরিচয়দানকরী কতৃক ধর্ষনের চেষ্ঠায় মামলা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে জামাল ইউনিয়নের গুটিয়ানি গ্রামে সোলার প্লান্ট (সেচ প্রকল্প) ঘরের ভিতরে ঘটনাটি ঘটে। যুগল সেচ পাম্পের কেয়ার টেকার।

ঝিনাইদহের সদর উপজেলার নলডাঙ্গা ইব্রাহিম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেনীর এক ছাত্রী মামা বাড়ি থেকে ফেরার পথে একই গ্রামের মৃত অশ্বিন বিশ্বাসের ছেলে যুগল (৩৮) রাস্তার ধারে মাদ্রাসার নিকট থেকে ছাত্রীকে জোর পূর্বক মাঠের ভিতর নিয়ে যায়। এরপর সোলার প্লান্টের ঘরের মধ্যে নিয়ে তাকে ধর্ষনের চেষ্ঠা করে। স্থানীয় ঝন্টু, হাসানসহ অনেকে উপস্থিতি টের পেয়ে যুগল ছাত্রীকে সেচ পাম্পে তালা দিয়ে পালিয়ে যায়। লোক লজ্জার ভয়ে ঐ স্কুল ছাত্রী ঘরের ভিতরে থাকা ঘাস মারা কীটনাশক সেবন করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। পরে স্থানীয়রা ও পরিবারের সহায়তার তাকে উদ্ধার করে কালীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ ভর্তি করা হয়।

যুগল গুটিয়ানী কালী মন্দিরের সাধারন সম্পাদকের দায়িত্বে রয়েছে। যুগল নিজেকে ধর্মীয়গুরু হিসাবে পরিচয় দিয়ে মন্দিরের অর্থ আত্মসাৎ, একাধীক নারী কেলেংকারিসহ নানা অপরাধের সাথে জড়িত।

কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মাহফুজুর রহমান মিয়া জানান, এঘটনাকে কেন্দ্র করে মামলা হয়েছে, প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *