রাশিদুল ইসলাম গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধিঃ

নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক আনোয়ার হোসেনের ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে।

আজ শুক্রবার (৫ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে উপজেলার রায়পুর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

বর্তমানে আনোয়ার হোসেন কে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এ নিয়ে পৌর শহরে উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি শান্ত রাখতে পৌর শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রেজানা গেছে- শুক্রবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার চাপিলা ইউনিয়নের কালিবাড়ী রায়পুর গ্রামে ওই ঘটনা ঘটে।

উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন ওই সময় স্থানীয় লোকদের জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ মেটাতে সেখানে যায়। সেখানে উপজেলা চেয়ারম্যান যাওয়ার পর পরই এমপি গ্রুপের সবুরসহ কয়েকজন পুলিশের সামনে তাকে মারধর করে বলে অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে গাড়ীতে তুলে দেয়।

পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তিনি বর্তমানে গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বলেন, তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে যখন পৌছান তখনি কয়েকজন ব্যক্তি বলেন, এমপি সাহেব বলে গেছে ঘটনাস্থলে যে আসবে তাকে যেন পেটানো হয়। তারই প্রেক্ষিতে তার লোকজন তাকে মারধর করেছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

এসআই রফিকুল ইসলাম বলেন, তিনি নিজে চেয়ারম্যানকে এবং তার ড্রাইভার রওশন ও তার সহযোগি আমিরুলকে উদ্ধার করেছেন এবং আক্রমণের মুলহোতা সবুরকে আটক করা হয়েছে।

এ বিষয়ে গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যানের ওপর আক্রমনকারী সবুরকে আটক করা হয়েছে। পৌর শহরে থমথমে অবস্থা বিরাজ করায় শহর জুড়ে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *