রাশিদুল ইসলাম,গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধিঃ

নাটোরের গুরুদাসপুরে ৩জন খদ্দেরসহ দেহপসারীণিকে গ্রেপ্তার করেছে গুরুদাসপুর থানা পুলিশ।

শনিবার (২ অক্টোবর) ভোরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গুরুদাসপুর থানা পুলিশ নাজিরপুর ইউনিয়নের চন্দ্রপুর এলাকার জালাল উদ্দিনের পুকুর পাড়ের কলাবাগান থেকে তাদের গ্রেপ্তার করেন।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, উপজেলার শ্যামপুর গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে নজরুল ইসলাম (৪০), পাঁচপুরুলিয়া গ্রামের ছলিম উদ্দিনের ছেলে রমিজুল ইসলাম (২৭), তুলাধুনা গ্রামের আসকান আলীর ছেলে আলম হোসেন (২৮) ও রাজশাহী পুলিশ লাইনের পুলিশ সদস্য মারুফ হোসেনের স্ত্রী দেহব্যবসায়ী প্রিয়াংকা খাতুন প্রিয়া ওরফে তছলিমা (২২)। তছলিমা নলডাঙ্গার মাধনগর এলাকার নজরুল মন্ডলের মেয়ে।
স্থানীয়রা জানায়, প্রিয়া নাটোর শহরে ভাড়া বাড়িতে থাকেন। মুঠোফোনের মাধ্যমে চুক্তিবদ্ধ হয়ে এলাকায় এসে রাতভর অসামাজিক কার্যকলাপ করেন। তার কারণে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। এতে যুব সমাজ ধ্বংস হচ্ছে।

গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আব্দুল মতিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে। শনিবার বিকেলে তাদের নাটোর জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply