গোলাম জীবন কাদের বিশ্বাস .চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:

শুক্রবার (৫ ফেব্রুয়ারী) সকাল ১০টায় জেলা সরকারী গ্রন্থাগারের হলরুমে আলোচনা সভা ও পুরুষ্কার বিতরণের মধ্য দিয়ে এ দিবস পালন করা হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন; অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(সার্বিক) তাজকির উজ-জামান,নবাবগঞ্জ সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. শংকর কুমার কুন্ডু,টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ড. ইমদাদুল হক মামুন,বেসরকারি গ্রন্থাগার সমিতির সভপতি মোঃ আমিনুল ইসলাম,জেলা গ্রগন্থাগারের লাইব্রেরীয়ান মাসুদ রানা প্রমুখ।
বক্তারা তাদের বক্তবে বলেন; বাংলাদেশ সরকার শিক্ষাবান্ধব সরকার। গ্রন্থাগার হলো একটি জ্ঞানের সমাহার। যেখানে হরেক রকমের বই থেকে জ্ঞান গ্রহণ করা যায়। পাবলিক লাইব্রেরি বা গণগ্রন্থাগার জনগণের বিশ্ববিদ্যালয়। সমাজের সকল স্তরের লোকের চাহিদা পূরণের জন্য এর উৎপত্তি ও বিকাশ। অন্য কোন গ্রন্থাগার এ উদ্দেশ্যে প্রতিষ্ঠিত হয় না। এমনকি এর মত বহুমূখি সেবা দিতেও প্রস্তুত নয়।

সমগ্র জাতিকে পরিকল্পিত উপায়ে সাহায্য করা এর লক্ষ্য। বিশেষ করে বুদ্ধির পরিপক্কতা অর্জনে সহায়তা গণগ্রন্থাগার প্রতিষ্ঠার অন্যতম কারণগুলোর মধ্যে একটি। সমাজে সকল প্রকারের সদস্য ছাত্র, যুবক, বৃদ্ধ, মহিলা ও বিভিন্ন পেশাজীবী যেহেতু এর ব্যবহারকারী সুতরাং আবশ্যিকভাবে সংগ্রহ করা হয়ও বহুমূখী। অর্থিক সংকটকালে কোন বই প্রয়োজন হলে এখান থেকে পড়ে সেই ঘাটতি পূরণ করা হয়।

এ সময় সেরা ৩ জন পাঠকে পুরস্কার প্রদান করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *