ডেক্স রিপোর্ট :
পাবনা চাটমোহরে গত কয়েকদিন ধরে লাগাতার বৃষ্টিপাতে নদী-নালা খাল-বিল পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় চলতি রোপা-আমন মৌসুমে রোপণকৃত রোপা ধান পানিতে ডুবে যাওয়ায় কৃষকের স্বপ্ন-দুঃস্বপ্নে পরিণত হতে চলেছে। ইরি বোরো ধান চাষে কৃষকরা লাভবান হওয়ায় রোপা মৌসুমে সুযোগ বুঝে তারা আমন ধানও বেশি পরিমাণ লাগায়। চারার দাম চড়া থকলেও চাষ যোগ্য জমি ফেলে রাখেনি এই এলকার চাষিরা। চোখের সামনে বানের পানিতে তলিয়ে যাচ্ছে বিঘা থেকে বিঘা জমির ধান। ফলে কৃষকের কপালে চিন্তার ভাঁজ।

উপজেলার গোপালপুর গ্রামের কৃষক মজিবর জানান, আমি ৪ বিঘা জমিতে ৩০হাজার টাকা খরচ করে রোপা-আমন ধান লাগিয়েছিলাম হঠাৎ বৃষ্টিপাতে বিলের পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় আমার এখন ৩ বিঘা জমির ধান বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। এভাবে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে বাকি জমিও তলিয়ে যাওয়ার আশংকা রয়েছে।


কৃষক হযরত আলী বলেন আমি আমি কিছু টাকা ঋণ নিয়ে দুই বিঘা জমিতে ধান লাগায় কিন্তু ভারী বর্ষণ হয় আমার দেড় বিঘা জমি তলিয়ে গেছে। আমি খুব দুশ্চিন্তায় আছি। এছাড়া উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ঘুরে কৃষকের সাথে কথা বলে জানা যায় এই মাসের শুরুতে থেকে ভারী বৃষ্টিপাত হয় বন্যার পানি বেড়ে যাওয়ায় তাদের সদ রোপণকৃত ধানের অধিকাংশ জমি পানিতে তলিয়ে গেছে।

উপজেলা কৃষি অফিসা মোঃ মাসুম বিল্লাহ জানান, চলতি মৌসুমে উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে প্রায় ৬ হাজার ১ শত হেক্টর জমিতে রোপ-আমন ধান লাগানো হয়েছে। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে প্রায় দেড় হাজার হেক্টরের বেশি। আগস্ট মাসের শুরুতেই মাঝে মধ্যেই বৃষ্টিপাতের কারণে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় উপজেলার ১১ টি ইউনিয়নের বেশ কয়েটি মাঠে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় প্রায় ৩০ হেক্টর রোপণকৃত রোপা-আমন ধান বিলের নিম্নাঞ্চলে তলিয়ে গেছে। তবে এখন পর্যন্ত ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণ করা যায়নি।

Leave a Reply