চৌদ্দগ্রাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি: কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে রাতের আঁধারে ইন্টারনেট ও ডিস লাইনের তার কেটে এবং সংযোগ মেশিন নষ্ট করে পৌরসভাধিন পাঁচরা গ্রামের কামরুল ইসলাম পাটোয়ারী মুরাদ নামে এক ব্যবসায়ীকে হয়রানী ও ব্যবসায়ীকভাবে ক্ষতি করার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত কয়েকদিনেই শুধু তার ৭০ হাজার টাকার ক্ষতি হয় বলে জানা গেছে। ঘটনাটি স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গকে জানালে তারা তাকে আইনের আশ্রয় নিতে পরামর্শ দেন। এ ঘটনায় ভুক্তভোগি ওই ব্যবসায়ী বৃহস্পতিবার সকালে অজ্ঞাতনামা কয়েকজনক আসামী করে চৌদ্দগ্রাম থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

থানায় দায়েরকৃত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পৌরসভাধিন পাঁচরা গ্রামের কামরুল ইসলাম পাটোয়ারী মুরাদ দীর্ঘ ১২ বছর ধরে নিজ এলাকায় ডিস ও ব্রডব্র্যান্ড ইন্টারনেট (ওয়াইফাই) এর ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন। বিগত ৬ মাস ধরে অজ্ঞাতনামা কিছু দুষ্কৃতিকারী প্রতিহিংসা পরায়ণ হয়ে তাকে ব্যবসা সংক্রান্ত ক্ষতি সাধন ও ডিস-ওয়াফাই গ্রাহকদের উসকে দেয়ার লক্ষ্যে রাতের আঁধারে ইন্টারনেট ও ডিস লাইনের তারগুলো কেটে দেয়া সহ সংযোগ কাজে ব্যবহৃত মেশিন গুলো নষ্ট করে রাখে। কয়েকদিন পরপরই এমন ঘটনা ঘটাচ্ছে দুষ্কৃতিকারীরা। তারই ধারাবাহিকতায় গত সোমবার রাত আনুমানিক সাড়ে এগারটায় পাঁচরা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে স্বপন মিয়ার বাড়ীর সামনে, মুক্তার বাড়ীর সামনে ও কমলপুর গ্রামের বাদল মিয়ার বাড়ীর সামনের মেইন লাইনগুলো কেটে দেয়। এ সময় অজ্ঞাতনামা দুষ্কৃতিকারীরা ডিস ও ওয়াইফাই এর মেশিনগুলোও নষ্ট করে রাস্তায় ফেলে রেখে যায়। এভাবে গত ছয়মাস ধরে দুষ্কৃতিকারীরা ক্ষতিসাধন করে আসছে বলে জানান ভুক্তভোগি ব্যবসায়ী মুরাদ পাটোয়ারী।

এ বিষয়ে মুরাদ পাটেয়ারী বলেন, একটি অসাধু চক্র প্রতিহিংসা পরায়ণ হয়ে আমার ব্যবসার ক্ষতি করতে এবং ব্যক্তিগত সুনাম নষ্ট করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছে। গত ছয়মাস ধরে তারা ডিস ও ইন্টারনেটের লাইন কেটে রাখাসহ সংযোগ মেশিনগুলো নষ্ট করার মত ঘৃণিত কাজটি করে যাচ্ছে। আমি এর প্রতিকার চেয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি। আশা করছি থানা প্রশাসন এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নিবে।

Leave a Reply