নিজস্ব প্রতিবেদক : পাবনার সাঁথিয়ায় মুজিব শতবর্ষে প্রধান মন্ত্রী উপহার গৃহহীনদের ঘর দেয়ার কথা বলে আওয়ামীলীগ নেতার স্ত্রীর বিরুদ্ধে টাকা দাবির অভিযোগ হেড লাইন করে যে নিউজ জনসম্মুখে সমালোচনার ঝড় তোলে করমজা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু দাউদ নান্নুর। সেই নিউজের দিত্বীয় প্রতিবেদন প্রকাশের জন্য মাঠ পর্যাযে গেলে হাড়ির খবর বের হতে থাকে করমজা ইউনিয়নের রাজনৈতিক নেতাদের। একে পরের উপর কাদা ছুড়াছুড়ি। এ বিষয় আবু দাউদ নান্নুর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন। মূল রহস্য হলো ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক পদ। আমি বতর্মান সাধারণ সম্পাদক আছি । আবার আসন্ন সম্মেলনে আমি প্রাথী। আমি যেবার নৌকা মার্কা প্রর্তীকে ইউপি চেয়ারম্যান প্রাথী হয়েছিলাম তৃনমূল প্রর্তীক নির্বাচনে হেড়ে যাই। তখন থেকে আমি মাঠ পযার্যে কঠিন অবস্থান করছি। দিনরাত ছুটে চলেছি আমার ইউনিয়নের সাধারণের বিপদ আপদে। এবার মাঠে আমি জনপ্রিয়তার শীর্ষ স্থানে আছি। ইনশাআল্লাহ নৌকার টিকেট আমি পাবো।এ খবর আমার বিপক্ষে সে সকল হাইবিট আওয়ামীলীগ আছে তারা ইতি মধ্যে জেনে গেছে। এখন তাদের করার কিছু নেই বলে আমার বিপক্ষে ষড়যন্ত্র শুরু করে দিয়েছে। সাধারণ জনগণের কাছে আমাকে ভুল প্রমাণিত করার চেষ্টা করছে তারা ইনশাআল্লাহ সফল হবে না। আমি আবু দাউদ নান্নু রাজনিতী করি সাধারণ মানুষের জন্য। আমি ছাত্রলীগ থেকে আওয়ামীলীগ হয়েছি। আমার বাড়িতে আজও টিনের ঘর। এবং যারা রাজনিতীতে আমার পরে এসেছে রাতারাতি তাদের অনেকের আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হয়ে গেছে। আমার এবং আমার স্ত্রীর বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করা হয়েছে তা মিথ্যা সাঁজানো নাটক। আমি ষড়যন্ত্রের শিকার। জনগণ আমার সাথে আছে কুচক্রমহল কিছু করতে পারবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *