ফরিদুল ইসলাম নয়ন(নারায়ণগঞ্জ সদর প্রতিনিধি)
শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৪০তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার এনায়েতনগর ইউনিয়ন বিএনপি ও স্বেচ্ছাসেবক দলের উদ্যোগে মীর মকবুল হোসেন বাবলু’র সভাপতিত্বে বিএনপি ও স্বেচ্ছাসেবক দল,এনায়েতনগর ইউনিয়ন ফতুল্লা দোয়া ও কাঙ্গালি ভোজ বিতরণ করা হয়েছে।

৩০শে মে (রবিবার) দুপুরে মাসদাইর ফারিয়া গার্মেন্টসের সামনে এ কর্মসূচী পালিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা এবং নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির আহবায়ক অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক জাহিদ হাসান রোজেল, ফতুল্লা থানা বিএনপির আহবায়ক আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস ও সদস্য সচিব নজরুল ইসলাম পান্না মোল্লা, আয়োজনে হযরত, হাসান মেহেদী, সবুজ কাজী, সুজিত, আবু বক্কর, লিটন ও সম্রাট।

এসময় তৈমুর বলেন, জিয়াউর রহমান মানেই বাংলাদেশ। তিনি বাংলাদেশকে পথ দেখিয়েছেন এবং এদেশের মানুষকে মুক্তি ও স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন। তাকে ছাড়া বাংলাদেশ কল্পনা করা যায়না। জিয়াউর রহমানের পরিবারের সদস্যরা এদেশের সবচেয়ে নির্যাতিত পরিবার এবং বর্তমান স্বৈরাচার সরকার এই পরিবারের উপর নানাভাবে নির্যাতন করে আসছে। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার জন্য তাকে বিদেশে পর্যন্ত নিতে দেয়া হচ্ছেনা। এদেশের মানুষ এ পরিবারের উপর আস্থা রাখে আর তাই এ পরিবারকে নিয়ে কোন ধরনের ষড়যন্ত্র হলে তা শক্তভাবে প্রতিহত করা হবে।

রোজেল বলেন, আমরা সবাই জানি জিয়া বাংলাদেশের কি এবং কে। জিয়াউর রহমানের নাম এদেশের প্রতিটি মানুষের হৃদয়ে লেখা আছে। এই নামকে কেউ চেষ্টা করলেই মুছতে পারবেনা। আমরা এখনো সংগ্রামে রয়েছি। এখন জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে এদেশকে মুক্ত করার সংগ্রাম করেছিল মানুষ আর এবার তার সুযোগ্য ছেলে দেশনায়ক তারেক রহমানের নেতৃত্বে স্বৈরাচার ও ফ্যাসিবাদ থেকে দেশকে মুক্তির সংগ্রাম করবে। এ সংগ্রাম অব্যাহত আছে এবং সংগ্রামে এদেশের আপামর সাধারণ মানুষের জয় হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *