আরিফুল ইসলাম ঝিনাইগাতী শেরপুর প্রতিনিধি:

শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতীতে শিশু আলী হোসেন হত্যা মামলায় ফারুক হোসেন (৩০) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে ঝিনাইগাতী থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃত ফারুক হোসেন উপজেলার মালিঝিকান্দা ইউনিয়নের উত্তর বানিয়াপাড়া (আসামপাড়া) গ্রামের শামছুল হকের ছেলে। থানা পুলিশ সুত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রবিবার দিবাগত রাত ৯ ঘটিকার দিকে ওসি মোহাম্মদ ফায়েজুর রহমান, এসআই মাসুদ রানা সহ সঙ্গীয় পুলিশ নিয়ে অভিযান চালিয়ে ফারুককে গ্রেফতার করা হয়। পরে গ্রেফতারকৃত ফারুক হোসেনকে সোমবার শেরপুর কোর্টে সোপর্দ করা হয়। ফারুক আদালতে স্বীকার করে বলেন, “গাছ লাগানোর জন্য কোদাল দিয়ে মাটি কুপানোবস্থায় শিশুরটির মাথায় কোদালের প্রচন্ড আঘাতে মাটিতে পড়ে গিয়ে মৃত্যুেবরণ করে। ফারুক নিজেকে বাঁচাতে প্রথমে শিশু আলী হোসেনকে বাঁশ ঝাড়ের মধ্যে লুকিয়ে রাখে। সময় সুযোগ বুঝে পরে তার ভায়ের রান্না ঘরে লুকিয়ে রাখে। সন্ধ্যার পর তাদের বাড়ির আনুমানিক ৬শত গজ দুরে জনৈক চাঁন মিয়ার পুকুরপাড়ের পশ্চিমের ডোবায় শিশু আলী হোসেনের লাশ লুকিয়ে রাখে।” উল্লেখ্য যে, গত ১৩মে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ২২মাস বয়সি শিশু আলী হোসেন নিখোঁজ হয়। পরিবারের লোকজন খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে ঝিনাইগাতী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন শিশুর পিতা জসিম উদ্দিন। পরে পুলিশের চিরুনি অভিযানে ১৫ মে শনিবার বিকেলে বানিয়াপাড়া গ্রামের চাঁন মিয়ার পুকুরের পাশের এবটি ডোবার পানিতে কচুরিপানার নিচ থেকে ওই শিশুর লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশ। ঝিনাইগাতী থানার ওসি মোহাম্মদ ফায়েজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *