ফরিদুল ইসলাম নয়ন,নারায়ণগঞ্জ সদর প্রতিনিধি: কোনোরকম পূর্ব ঘোষণা বা সিদ্ধান্ত ছাড়াই নারায়ণগঞ্জে তেলের দাম বৃদ্ধির অযুহাতে যাত্রীবাহী বাস ভাড়া হঠাৎ করেই বৃদ্ধি পেয়েছে। দুটি পরিবহন কোম্পানী তাদের বাস ভাড়া জনপ্রতি একলাফে ৩৬ টাকা থেকে ৫০ টাকা বাড়িয়ে দিয়েছে। এতে সকাল থেকেই বিপাকে পরেছে ঢাকা-নারায়নগঞ্জ যাতায়াতকারী হাজার হাজার যাত্রী। এনিয়ে ক্ষোভ বিরাজ করছে পুরো শহর জুড়ে।

৪ই নভেম্বর (বৃহস্পতিবার) সকাল থেকে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে নিয়মিত চলাচলকারী বাস যাত্রীরা জানায়, প্রতিদিনের মতো সকালে রাজধানী ঢাকা যাওয়ার উদ্দেশ্যে নারায়ণগঞ্জ বাস কাউন্টারে এসে দেখি প্রতি যাত্রী থেকে ১৪ টাকা বেশী নেয়া হচ্ছে। টিকিটে লেখা ৩৬ টাকা তার উপর সিল দিয়ে লেখা হয়েছে ৫০ টাকা। এনিয়ে সকাল থেকে দিনব্যাপী যাত্রীদের সঙ্গে বাস কাউন্টারে দফায় দফায় বাক বিতন্ডার ঘটনা ঘটলেও বাস কোম্পানীগুলো অতিরিক্ত ভাড়া অব্যাহত রেখেছে। এব্যাপারে প্রশাসনের সহযোগীতা চেয়েও সাড়া মেলেনি বলে কয়েকজন যাত্রী অভিযোগ করেন।

নারায়ণগঞ্জ বাস কাউন্টারের সামনে দাঁড়ানো বন্দরের লিয়াকত ইসলাম জানান, সাধারণত বন্ধন বাসেই যাতায়াত করি। অন্যান্য দিনের মতো আজও ১০০ টাকার নোট কাউন্টারে দিলে টিকেটের সঙ্গে ৫০ টাকা ফেরত দেয়। বাকী টাকা কই? জিজ্ঞেস করতেই কাউন্টারের লোক বলেন ভাড়া আজ থেকে ৫০ টাকা। জানেন না মিয়া ডিজেলের দাম বাড়ছে, সবকিছুর দাম বাড়ছে, তাই বাস ভাড়াও বাড়ছে। দেখেন সীল দিয়ে লেখা আছে ৫০ টাকা ই।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জ-ঢাকা রুটে চলাচলকারী সিটি বন্ধন ও নিউ উৎসব পরিবহন কোম্পানীর বাসভাড়া ৩৬ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫০ টাকা করা হয়েছে। পাগলা দিয়ে চলাচলকারী নিউ আনন্দ পরিবহনের বাসভাড়া ৩২ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩৫ টাকা করা হয়েছে। তবে একই রুটে চলাচলকারী বিআরটিসি বাসের ভাড়া আগের মতো ৩০ টাকাই রয়েছে।

সিটি বন্ধন বাসের পরিচালক হাজী মুরাদ হোসেন জানান, বাস প্রতি ট্যাক্স ২৬ হাজার টাকা থেকে ৫২ হাজার টাকা বৃদ্ধি করা হয়েছে। টায়ারের দাম বেড়েছে, বুধবার ডিজেলের দাম ১৫ টাকা বেড়েছে। সব মিলিয়ে খরচ অনেক বেড়েছে। দ্রব্যমুল্যও অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই বাস ভাড়া ১৪ টাকা করে বাড়ানো হয়েছে। তিনি দাবি করেন, একটি বাস ঢাকায় যাতায়াত করতে ১৪/১৬ লিটার ডিজেল লাগে। যাত্রী পাওয়া যায় গড়ে ৫৫ জন। এতোদিন বাস মালিকরা লস দিয়ে চালিয়েছে। এখন দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে। সবকিছুর দাম বেড়েছে। বাস ভাড়া বাড়ানো ছাড়া কোন উপায় নাই। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এব্যাপারে প্রশাসন বা কারো সাথে আলোচনা হয়নি। আজ (বৃহস্পতিবার) বিকেলে ঢাকায় বাস ভাড়া দিয়ে পরিবহন মালিকদের বৈঠক রয়েছে। সেখানে চুড়ান্ত হবে সবকিছু।
সিটি বন্ধন বাসের চালক ইকবাল হোসেন জানান, বন্ধন পরিবহনের ৬০টি বাস এই রুটে আছে। রেগুলার চলে ৫২/৫৪ টি বাস। গড় যাত্রী থাকে ৬০ জন। প্রতিবার যাতায়াতে ড্রাইভার পায় ২০০ টাকা, হেলপাড় পায় ১০০ টাকা। দিনে ৪/৫ বার আপ ডাউন করে বাসগুলো।

চাষাড়া বন্ধন বাস কাউন্টারের সামনে একজন যাত্রী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, দেশটা কি মগের মুল্লুক? কোন নিয়ন্ত্রণ নেই। একলাফে ভাড়া ১৪ টাকা বাড়ছে, কে নিয়ন্ত্রণ করবে এসব। প্রশাসনকে এখনই ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী জানাই।

আরেক যাত্রী জানান, ডিজেলের দাম বাড়ছে তাই বলে প্রতি যাত্রীর কাছে ১৪ টাকা বেশি নিতে হবে? এসবের কি কোন সমাধান নেই?

উৎসব বাসের যাত্রী রনি জানান, বাস ভাড়া একসাথে এতটাকা বাড়ানোর কোন নজীর নেই। আমরা আসলে অসহায়। কে প্রতিবাদ করবে?

উল্লেখ্য, লিটারে ১৫ টাকা বাড়িয়ে ডিজেল ও কেরোসিনের দাম পুননির্ধারণ করেছে সরকার। লিটার প্রতি নতুন দাম পড়বে ৮০ টাকা। বুধবার দিবাগত রাত ১২টা থেকে এটি কার্যকর শুরু হয়।

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপ-প্রধান তথ্য অফিসার মীর মোহাম্মদ আসলাম উদ্দিন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে ডিজেল ও কেরোসিনের মূল্য প্রতি লিটার ভোক্তা পর্যায়ে ৬৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৮০ টাকা পুনঃনির্ধারণ করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, আন্তর্জাতিক বাজারে জালানি তেলের মূল্য ক্রমবর্ধমান। বিশ্ববাজারে ঊর্ধ্বগতির কারণে পার্শ্ববর্তী দেশসহ বিশ্বের অন্যান্য দেশ জ্বালানি তেলের মূল্য নিয়মিত সমন্বয় করছে। গত ১ নভেম্বর ভারতে ডিজেলের বাজার মূল্য প্রতি লিটার ১২৪.৪১ টাকা বা ১০১.৫৬ রুপি ছিল, অথচ বাংলাদেশে ডিজেলের মূল্য প্রতি লিটার ৬৫ টাকা অর্থাৎ লিটার প্রতি ৫৯.৪১ টাকা কম।

Leave a Reply