শুভ চক্রবর্ত্তী, নবীনগর(ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার নাটঘর ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত হয়ে দীর্ঘদিন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় গত বুধবার সন্ধ্যায়(২০ জানুয়ারি) মৃত আজম মুন্সীর ছেলে বাছির মিয়ার(৫৯) মৃত্যু হলে, এ সংবাদ শুনে অপরপক্ষের পাল্টা হামলায় গুরুতর আহত হন ফারুক মিয়া(৬০)। তাকে আহত অবস্থায় দ্রুত হসপিটালে নেওয়ার সময় রাস্তা মধ্যেই সে মারা যায় এবং ফারুক মিয়ার পক্ষের লোকজন বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটতরাজ শুরু করে, এতে গৃহ পালিত গরু, ঘরের আসবাবপত্র ও দোকানের মালামাল লুটপাটের ঘঠনাও ঘটেছে বলে জানায় এলাকাবাসী ।

নবীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ আমিনুর রশীদ, নবীনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মনির ঘটনারস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং বৃহস্পতিবার(২১ জানুয়ারি)দুই মৃতের জানাযায় অংশগ্রহন করেন ও দাফনকার্য সম্পন্ন করতে সহযোগিতা করেন।

ঘটনাস্থলে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশের মোতায়েন রয়েছে। অফিসার ইনচার্জ আমিনুর রশিদ জানান দুই লাশেরই পোস্টমর্টেম সম্পন্ন হয়েছে ময়নাতদন্তের রিপোর্টের আলোকে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *