কেএম সুজন,স্টাফ রিপোর্টার(টাঙ্গাইল):টাঙ্গাইলের নাগরপুরে ছোট বাচ্চাদের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে দোকানঘর ও বসতবাড়ী ভাঙ্গচুরের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার পাকুটিয়া ইউনিয়নে এ ঘটনায় ৩ জন আহত হয়। আহতরা হলেন পাকুটিয়া ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ জানে আলমের বড় ভাই মো. আদম আলীর দুই ছেলে মো রবিউল (১৫) ও রাহুল (১০) এবং চাচাতো ভাই শিপন (২৩) । আহতদের এলাকাবাসী উদ্বার করে নাগরপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ বিষয় নিয়ে পাকুটিয়া ইউনিয়নের মো. আদম আলী নাগরপুর থানায় একটি অভিযোগ দায় করে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার পাকুটিয়া ইউনিয়নে ছোট বাচ্চাদের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে দোকানঘর ও বসতবাড়ী ভাঙ্গচুরের ঘটনা ঘটিয়েছে ওই এলাকার সোহেল, আশিক, এলিম , অনিকসহ আরো ৩/৪জন মিলে। মো. আদম আলীর দোকানে ও বসতবাড়ীতে হামলা, ভাঙ্গচুর ও লুটপাটসহ মারপিট ঘটায় ওই দূর্বৃত্তরা । এতে মো. আদম আলীর দু ছেলে মো রবিউল (১৫) ও রাহুল (১০) এবং চাচাতো ভাই শিপন (২৩) গুরুতর আহত হয় । তাদেরকে এলাকাবাসী উদ্বার করে নাগরপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ বিষয় নিয়ে পাকুটিয়া ইউনিয়নের মো. আদম আলী নাগরপুর থানায় ৬ জন কে আসামী করে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

পুনরায় বুধবার সকালে সোহেল, আশিক, এলিম, অনিকসহ আরো ৩/৪ জন মিলে জানে আলমের পরিবারের উপর হামলা করে। পরে গ্রাম পুলিশ জানে আলম বাদী হয়ে নাগরপুর থানায় ৯ জনের নাম উল্লেখ করে আরো একটি অভিযোগ দায়ের করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *