কেএম সুজন,স্টাফ রিপোর্টারঃ
টাঙ্গাইলের নাগরপুরে গয়হাটা ও সদর বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করেছে। অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য সামগ্রী ও মিষ্টি তৈরিতে মেয়াদহীন উপকরণ ব্যবহার ও কাঁচা মাল মজুদ সহ লাইসেন্স বিহীন যত্রতত্র দাহ্য পদার্থ বিক্রি করার অপরাধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন আইনে সদর বাজারে ১১ ও গয়হাটা বাজারে ৭ জন দোকানিকে মোট ৪৯ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করা হয়।নাগরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিফাত-ই-জাহান ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) তারিন মসরুর এর নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান অাদালত পরিচালিত হয়।

বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার গয়হাটা বাজারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট সিফাত-ই-জাহান অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মিষ্টি তৈরি, নষ্ট বাসি মিষ্টি ও গাদ সংরক্ষন এবং বিক্রয়ের উদেশ্যে ফ্রিজে নষ্ট দই ও রসমালাই রাখার অপরাধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন আইন ২০০৯ এর ৫১ ও ৩৯ ধারায় ৬ জন মিষ্টির দোকানিকে ৩২ হাজার ও মুল্য তালিকা প্রদর্শনে ব্যর্থ হওয়ায় এক মুদি দোকানীকে ১ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এদিকে একই সময়ে নাগরপুর সদর বাজারে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট তারিন মসরুর লাইসেন্স ব্যতিরেকে এবং বিধিনিষেধের তোয়াক্কা না করে রাস্তার উপর গ্যাস সিলিন্ডার এবং পেট্রোল, অকটেন ইত্যাদি দাহ্য পদার্থ রেখে বিক্রি করছে এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে মোবাইল কোট পরিচালনা করেন। অগ্নি নির্বাপণের যথাযথ ব্যবস্থা না থাকায় অগ্নি প্রতিরোধ ও নির্বাপণ আইন ২০০৩ এর বিধিনিষেধ অমান্য করে সেবা গ্রহীতার জীবন/নিরাপত্তা বিঘ্নিত করার অপরাধে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৫২ ধারায় ও দন্ডবিধি ১৮৬০ এর ২৯১ ধারায় ১১ জন ব্যবসায়ীকে ১৬ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনা কালে আরো উপস্থিত ছিলেন, নাগরপুর ফায়ার সার্ভিস স্টেশন ইনচার্জ মোঃ মেহেদী হাসান, উপজেলার আনসার ভিডিপির (ভারপ্রাপ্ত) কর্মকর্তা মো. জাইদুর রহমান জাহিদ সহ পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের অন্যান্য সদস্যবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *