এস ইসলাম, নাটোর জেলা প্রতিনিধি:

নাটোরের গুরুদাসপুরে অবশেষে শিশুকন্যা হাবিবাকে ধর্ষণ চেষ্টার তিনদিন পর গুরুদাসপুর থানায় মামলা রেকর্ড করা হয়েছে।

বুধবার (২৬ মে) সকালে উপজেলার দড়িকাছিকাটা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ স্থানীয়রা মানববন্ধন করলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি ভাইরাল হয়। এর পরপরই বুধবার দুপুরে থানায় রেকর্ড হয় মামলাটি। হাবিবা ওই স্কুলের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী।

অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মশিন্দা পূর্বচরপাড়া গ্রামের শহিদুলের মেয়ে হাবিবা (৭) গত রোববার (২৩ মে) দুপুরে তার চাচা আনসার আলীর বাড়ীতে যাওয়ার পথে আম দেওয়ার কথা বলে আমবাগানে ডেকে নিয়ে যায় একই গ্রামের হাদীর ছেলে কুদ্দুস (৫০)। এসময় কুদ্দুস তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করলে শিশুটির চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে কুদ্দুস পালিয়ে যান। ঘটনার দিনই শিশু হাবিবার বাবা শহিদুল বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দেন। ওই অভিযোগ নথিভুক্ত (রেকর্ড) না হওয়ার প্রতিবাদে এলাকাবাসী মানববন্ধন করে।

শিশুটির বাবা শহিদুল বলেন, আমরা হয়রানীর শিকার হয়েছি। তারপরও ন্যায়বিচার পাওয়ার আশা করছি।

অভিযুক্ত কুদ্দুস ও তার পরিবারের লোকজন পলাতক থাকায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বলেন, থানায় মামলা হয়েছে। তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *