নিজস্ব প্রতিনিধি :
পাবনার চাটমোহর উপজেলার হিড়িন্দা দাখিল মাদ্রাসা মাঠে ফৈলজানা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ কর্তৃক আয়োজিত বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ফৈলজানা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ ওমর আলীর সভাপতিত্বে ও ফৈলজানা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সঞ্চালনা করেন মোঃ আব্দুস ছালাম।

সোমবার (২৫শে অক্টোবর) সকাল ১০ ঘটিকায় উক্ত বর্ধিত সভায় বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ফৈলজানা ইউনিয়ন শাখার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন এবং ফৈলজানা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ৯জন ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন। বক্তব্য রাখেন-মোঃ আক্কাছ আলী মোল্লা সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক,ফৈলজানা ইউনিয়ন শাখা, প্রভাষক মিজানুর রহমান মিজান শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক , আব্দুল হামিদ সরদার ৬ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য , মোঃ হাবিবুর রহমান হাবিব (প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক), হাবিবুর রহমান হাবিব উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য ও উপ-দপ্তর সম্পাদক , আব্দুস সালাম মোল্লা সদস্য পদপ্রাথী। এছাড়াও আরো বক্তব্য রাখেন, দলীয় চেয়ারম্যানপদ প্রার্থীগন ফৈলজানা ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ হাফিজুর রহমান হাফিজ, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুস ছালাম, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ সাইদুর রহমান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মোঃ হায়াত উজ জামান হায়াত, উপজেলা ছাত্রলীগের কার্যকরী সদস্য এডভোকেট এস এম মনিরুজ্জামান আকাশ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবুল কালাম আজাদ কালু বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক ফৈলজানা ইউপি, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মোঃ জামান মাসুদ, মোঃ জাহাঙ্গীর আলম সোনা, (সাবেক চেয়ারম্যানের পুত্র) মোঃ জয়নাল আবেদীন ভূঁইয়া সহ-সভাপতি,ফৈলজানা ইউনিয়ন ছাত্রলীগ।

বক্তারা বলেন, আমরা নৌকার বিপক্ষে নই, আমরা ব্যক্তি হানিফ চেয়ারম্যানের বিপক্ষে। যে ব্যক্তি বিগত ২০১২ সালে জামাত থেকে জেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম একজন সহ-সভাপতির সহযোগিতায় আওয়ামীলীগে যোগদান করেন। ২০১৬সালে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তৃনমুল নেতাদের কাছ থেকে ভোট কিনে দলীয় মনোনয়ন লাভ করেন। দলীয় মনোনয়ন পেয়ে নৌকা প্রতীকের নির্বাচিত চেয়ারম্যান হয়ে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কোন কর্মসুচীতে যোগ দেননি।
দলীয় কোন নেতা-কর্মী সমর্থকদের কে মুল্যায়ন করেননি তিনি। তিনি জামাত ও বিএনপির একাংশকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন ইউনিয়ন পরিষদের সংশ্লিষ্ট কাজে। কোন আওয়ামীলীগের কর্মী সমর্থক বা নেতা তার কাছে কোন রুপ সহযোগীতা পায়নি বিগত পাঁচ বছরে।

যার প্রেক্ষিতে উক্ত জনবিচ্ছিন্ন ও কর্মী বিচ্ছিন্ন ব্যক্তিকে ফৈলজানার জনসাধারণ ব্যক্তিরা গ্রহন করছেননা। উপস্থিত জনতার মঞ্চে অবস্থানকারী হাজারো জনতা সমস্বরে “জনতার ঐক্য মঞ্চ” ঘোষনা করেন এবং নয় জন মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মাঝ থেকে ফৈলজানা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ১৯৮৫ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত ৩৩ বছরের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালনকারী ও ২০১৭ সাল থেকে ২০২০ পর্যন্ত সিনিয়র সহ-সভাপতি এবং বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ হাফিজুর রহমান হাফিজ কে জনতার ঐক্য মঞ্চের প্রার্থী ঘোষনা করা হয়।

উপস্থিত হাজারো জনতা শপথ করেন, যে একজন ত্যাগী নিবেদিত প্রান আওয়ামীলীগ কর্মী হাফিজ কে জীবনের শেষ বেলায় অন্তত একটু সম্মান জনক স্থানে প্রতিষ্ঠিত করতে চাই। সভায় দলমত নির্বিশেষে উপস্থিত জনতা হাফিজুর রহমান হাফিজ কে ভোট দেবার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন।

Leave a Reply