সোহেল রানা, যশোর প্রতিনিধিঃ মালয়েশিয়া প্রবাসী তরুণ সমাজ সেবক তরিকুল ইসলামের আর্থিক সহযোগিতা ও খাদ্য সামগ্রী নিয়ে সড়ক দূর্ঘটনায় পঙ্গু শাহাবুদ্দিনের পরিবারের মাঝে পৌছে দিলেন শার্শার কৃতি সন্তান দেশসেরা উদ্ভাবক মিজানুর রহমান।

শাহাবুদ্দিন যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার শিমুলিয়া ইউনিয়নের জামালপুর গ্রামের তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে।
বুধবার দুপুর ১২টার দিকে শাহাবুদ্দিনের চিকিৎসা বাবদ নগদ ২৬ হাজার টাকা, শীত বস্ত্র, চাউল, ডাল, তেল, তরকারিসহ পুষ্টিকর খাবার শ্রদ্ধা ও ভালবাসা দিয়ে অসহায় পরিবারের হাতে তুলে দেন তিনি।

উল্লেখ্য : করোনাকালিন সময়ের আগে মালয়েশিয়া থেকে ছুটিতে বাড়িতে আসেন শাহাবুদ্দিন। লকডাউনের পড়ে যাওয়ায় প্রবাশে আর যাওয়া হয়নি তার। মা বাবা স্ত্রী ও দুই সন্তানকে নিয়ে গড়া পরিবারে অভাব দারিদ্র্য বেড়ে যাওয়ায় ট্রলি চালাতে যায় শাহাবুদ্দিন। কিছুদিন এভাবে চলার পর গত ৬ ডিসেম্বর ২০২০ তে সড়কে ট্রলি উল্টে চাপা বাম পা ও বাম হাত দুমড়ে মুচড়ে যায় তার।

ঠিক পিছনের ট্রলিতে থাকা মামাতো ভাই একই গ্রামের মৃত নওশের আলী মোড়লের ছেলে মমিনুর রহমান শাহাবুদ্দিনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেন। কিন্তু দুঃখের বিষয় ঐ দূর্ঘটনায় শাহাবুদ্দিনের হাত কিছুটা ভাল হলেও বাম পা কেটে বাদ দিতে হয় তার।

সড়কে পঙ্গুত্ব বরণের কথা শুনে মালয়েশিয়ায় থাকা শাহাবুদ্দিনের সাথে কর্মরত অপর এক বাংলাদেশি বন্ধু শার্শার রাজনগর গ্রামের আ: মজিদের ছেলে তরিকুল ইসলাম ২৬ হাজার নগদ টাকা এবং প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী পাঠাতে এগিয়ে আসেন।

উদ্ভাবক মিজান বলেন,আসুন প্রবাসী বাংলাদেশি তরিকুলের মতো সকলেই সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়। এখানে আমরা কেউ কিছু নিয়ে আসিনা,কেউ কিছু সাথেও নিয়ে যাবোনা। তাই যার যার অবস্থান থেকে সর্বনিম্ন হলেও দানের হাত বাড়িয়ে অসহায়ের পাশে দাঁড়ায়।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অর্থ সাহায্যকারী প্রবাসী তরিকুলের পিতা আ: মজিদ,সাংবাদিক মিলন কবীর, জসিম উদ্দিনসহ স্থানীয় গণমান্য ব্যক্তিবর্গ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *