মোঃ রিয়াজুর রহমান
পটুয়াখালী প্রতিনিধি:

পটুয়াখালী কালিশুরী ইউনিয়নের মান খান গ্রামে দেবর কর্তৃক ভাবিকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। গত রোজ শুক্রবার রাত( ৯) ঘটিকায় নিজের বসত ঘরে দেবর কর্তৃক ভাবিকে ধর্ষণের চেষ্টা করে ৷

এ বিষয়ে ওই নারী জানান, তার স্বামী গরু কিনার জন্য বাজারে গেলে তাদের বাড়িতে ঢুকে ওই দেবর। সে তখন সাংসারিক কাজকর্ম করিতেছিল। তাদের বাড়িতে তার ছোট দেবর সুদী ব্যবসায়ী কামাল( ৩৮) ঢুকলে তার ভাবির নিজ রুমে বসতে বলে‌। ঠিক তখন তার ভাবিকে জাপটে ধরে বিছানার উপরে ফেলে ধর্ষণের চেষ্টা করে। সে তখন চিৎকার করতে থাকলে বাড়ির আশে-পাশের লোকজন এগিয়ে যায়। পরে তার স্বামী এসে দেখলে তাকে বাঁধা প্রদান করে।

অপরদিকে ওই নারীর স্বামীমোঃ হুমায়ুন বলেন, সে বাড়িতে না থাকায় বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে কুপ্রস্তাব ও সোনা গয়না দেওয়ার প্রলোভন দেখায় এবং এই সুযোগে বাড়িতে ঢুকে তার নিজের ছোট ভাই সুদ ব্যবসায়ী কামাল হাওলাদার তার স্ত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। সে তা নিজের চোখে দেখে থামতে না পেরে তার নিজের ছোট ভাই ধর্ষণ চেষ্টাকারী কামাল বড় ভাইয়ের প্রতি ক্ষিপ্ত হয় এবং মারধরের চেষ্টা চালায় ৷

এদিকে প্রতিপক্ষ তার আপন অন্য ভাই মোহাম্মদ জামাল হাওলাদার বিষয়টি জানে ঘটনাস্থলে এগিয়ে আসার পর ধর্ষণ চেষ্টাকারী আপন ভাই কামাল হাওলাদারকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তাকেও হুমকি-ধামকি ও মারধর চেষ্টা করে ৷ এবং আরো জানা যায় ওই সুদ ব্যবসায়ী কামাল হাওলাদার সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক বটে এবং এলাকায় তার খুব নামডাক আছে তার ভয়ে কেউ কখনো মুখ খুলে না ৷

বাউফল থানার ওসি মোঃ মামুন তাঁর মুঠোফোনে এই ধর্ষণের বিষয়টি জানতে চাইলে সে জানায় আমি জানিনা এবং এরকম বিষয় নিয়ে থানায় কেউ অভিযোগ দিতে আসেনি তবে আসলে আমি তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিব ৷

Leave a Reply