নিজস্ব প্রতিবেদক: সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বিনেরপোতা শেখপাড়া এলাকার এক প্রেমিকার বাড়িতে ডেকে নিয়ে প্রেমিককে বেদম মারপিট ও হত্যার চেষ্টার অভিযোগে প্রেমিকাসহ ১২ জনকে আসামী করে প্রেমিকের পিতা জাহাঙ্গীর গাজী বাদি হয়ে সাতক্ষীরা থানায় একটি লিখিত এজাহার দায়ের করেছেন।

চলতি মাসে শনিবার রাত অনুমান ১০ টার দিকে বিনেরপোতার শেখপাড়া এলাকার প্রেমিকার পিতা বাক্কার মোল্লার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এজাহার সূত্রে জানাগেছে বিনেরপোতার শেখপাড়া এলাকার জাহাঙ্গীর গাজীর ছেলে মেহেদী হাসান সাগর (২০) ও একই এলাকার কন্যা (১৯) এর সহিত প্রেমের সর্ম্পক গড়ে উঠে। এদের প্রেমের সর্ম্পক বিষয়ে উভয় পরিবারের লোকজন জানে। তাছাড়া সাগর ও কন্যা উভয় পরিবারের বাড়িতে তারা যাতায়াত করে আসছে।

গত শনিবার রাত অনুমান ১০ টার দিকে প্রেমিক সাগরকে মোবাইল ফোনে কন্যা তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে আসে। একপর্যায় কন্যার পিতা বাক্কার মোল্লা ও মুকুল, সোহেল, মিজানসহ আরও অনেকে কন্যার পরিবারের লোকজন সাগরকে কাঠের চলা, ইট দিয়ে আঘাত করে ও কিলঘুষি, লাথি মেরে ফোলা ও হাড় ভাঙ্গা জখম করে এবং গলা চেপে তাকে হত্যা করার চেষ্টা করে।

এসময় স্থানীয়রা মাটিতে সাগরকে পড়ে থাকা অবস্থায় দেখতে পেয়ে সাগরের পরিবারকে খবর দেয়। সাগরের পরিবার খবর পেয়ে কন্যার বাড়ি থেকে তাকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। কিন্ত সেখানে সাগরের অবস্থা আশংজনক হলে তাকে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন তার পরিবার। সাগর আশংজনক অবস্থায় সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধন আছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *