বাহার উদ্দিন, ফুলপুর(ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে অর্থাভাবে পড়া কৃষক শ্রমিক দিয়ে ধান কাটাতে পারছিল না কৃষক আবু মিয়া এমন পরিস্থিতিতে তার পাশে দাঁড়িয়েছে লাল সবুজ ফ্রেন্ডস ক্লাব সমাজ’ নামক স্থানীয় একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

ফুলপুর উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের উত্তরকান্দা গ্রামের গরীব কৃষক পঙ্গু আবু মিয়ার ৩২ শতাংশ জমির বোরো ধান কেটে দিলেন স্থানীয় লাল সবুজ ফ্রেন্ডস ক্লাব নামের একটি সংগঠনের সদস্যরা।অসহায় এ কৃষকের আর্থিক অবস্থার কথা চিন্তা করে তার ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে মাড়াই করে দিয়েছেন।

সোমবার সকালে ওই সংগঠনের সভাপতি অমিত দেওয়ানের নেতৃত্বে সংগঠনের ১৫/২০ জন সদস্য কৃষক আবু মিয়ার ৩২ শতক জমির ধান কেটে মাড়াই করে ঘরে তুলে দিয়েছেন লাল সবুজ ফ্রেন্ডস ক্লাবের স্বেচ্ছা‌সেবীরা।

কৃষক আবু মিয়া উদ্দিন বলেন,লাল সবুজ ফ্রেন্ডস ক্লাব সংগঠনের সদস্যরা স্বেচ্ছাশ্রমে আমার ৩২ শতাংশ জমির ধান কেটে বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছেন।এতে আমার অনেক উপকার হয়েছে।এই বিপদে ছেলেগুলো এগিয়ে না আসলে অনেক কষ্ট হতো।আমার এই বিপদে ছেলে গুলো এগিয়ে আসায় আমি তাদের জন্য দোয়া করি।

উপস্থিত ছিলেন অমিত দেওয়ান,বালিয়ার সমাজ সেবক আশরাফ উদ্দিন গোলাম মোস্তফা,আবুল কাসেম শেখ,ইসমাইল হোসেন খাঁন আল আমিন খান বিপুল,মোস্তাফিজুর রহমান(আবুনি)আজাদ শেখ,সুজন আহামেদ রাজা,প্রবীর চন্দ্র সেন,হীমেল চন্দ্র সেন,ধীমান মিত্র,মনিরুজ্জামান মুন্না,মাসুদ রানা,মোঃ রাসেল শেখ,রিংকু চন্দ্র সেন,রাকিবুল হাসান,নাজমুল হাসান,মোঃজীবন খান,আবু রায়হান,মোঃসিদ্দিক,
রবিউল হক বাবু সরকার প্রমুখ।

অসহায় কৃষ‌কের ধান কে‌টে দি‌য়ে স্থানীয় লোকজ‌নের কা‌ছে প্রশং‌সিত হ‌য়ে‌ছেন সংগঠনের কর্মীরা তাদের এমন মানবিক উদ্যোগ এলাকার সাধারণ কৃষক আনন্দিত।তরুণদের এমন উদ্যোগকে সাদুবাদ জানিয়েছেন স্থানীয় এলাকাবাসী।

সংগঠনটির সভাপতি অমিত দেওয়ান জানান,‘কৃষক আবু মিয়ার টাকার অভাবে জমির পাকা ধান শ্রমিক দিয়ে কাটতে পারছিলেন না।আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে উদ্যোগ নিয়ে স্বেচ্ছাশ্রমে ধান কেটে মাড়াই করে দিয়েছি।সংকটে থাকা কৃষকের উপকার করতে পেরে আমাদের ভালো লাগছে।এভাবেই সংকটে থাকা অন্য কৃষকদের সাধ্যমতো সহযোগিতা করার পরিকল্পনা রয়েছে।

তিনি বলেন লাল সবুজ ফ্রেন্ডস ক্লাব যে কাজটি করেছে তা উত্তরকান্দা গ্রামের উদাহরণ হয়ে থাকবে।এ সংগঠনকে অনুসরণ করে অন্যদেরও এগিয়ে আসা উচিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *