মিরু হাসান বাপ্পী
আদমদিঘী (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ

বগুড়ার কাহালুর পল্লীতে কিস্তির টাকা আদায় করতে গিয়ে সপ্তম শ্রেণীর স্কুল পড়ুয়া ছাত্রীকে কু-প্রস্তাব দেয়ায় এক এনজিওর মাঠকর্মী জনতার হাতে আটক অতঃপর গ্রাম্য সালিশে খেসারত দিয়ে খালাস পাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। একাধিক সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার (৭ এপ্রিল) সকাল ১১টায় কালাই ইউপির (নলডুবি মাজার এলাকা) নাটায়পাড়া গ্রামে জনৈক আব্দুল আলিমের বাড়ীতে কাহালু উপজেলার কালাই ইউপির কর্ণিপাড়া দুঃস্থ মহিলা সংস্থা (ডি.এম.এস) বাজার শাখার মাঠ কর্মী আব্দুল জাব্বার কিস্তির টাকা আদায় করতে যায়।

এসময় ওই বাড়ীতে জনৈক আলিমের মেয়ে স্কুলপড়ুয়া সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী একা থাকায়, এনজিও কর্মী আব্দুল জব্বার ওই মেয়েকে কু-প্রস্তাব দেয়। এসময় ওই ছাত্রী চিৎকার করতে থাকলে। তার আত্ম চিৎকারে প্রতিবেশিরা এগিয়ে আসে এবং এনজিও কর্মীকে আটক করে।

দীর্ঘ ৩/৪ ঘন্টা আটক থাকার পর গ্রাম্য সালিশে মোটা অংকের খেসারত দিয়ে খালাস পায়। এ ব্যাপারে এনজিও’র ম্যানেজারের নিকট জানাতে চাইলে তিনি সাংবাদিক জেনে কোন প্রশ্নর উত্তর না দিয়ে তরিঘড়ি করে অফিস বন্ধ করে চলে যায়।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *