মিরু হাসান বাপ্পী
আদমদিঘী (বগুড়া) প্রতিনিধি:

বগুড়া জেলায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে দূরপাল্লার গণপরিবহন চালুসহ ৫ দফা দাবীতে ঈদের দিন বগুড়ায় অবস্থান কর্মসুচী পালন করেছে বগুড়া জেলা সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক যৌথ কমিটি।

শুক্রবার (১৪মে) বেলা সাড়ে ১০ টার দিকে শহরের চারমাথা এলাকার জেলা কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে এই অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয় বলে জানা গেছে

কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বগুড়ার পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা যৌথ ভাবে এই অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন বলে জানিয়েছেন ।

উক্ত অবস্থান কর্মসূচিতে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন বগুড়া জেলা সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক যৌথ কমিটির সভাপতি সামছুদ্দিন শেখ হেলাল।
বক্তব্য রাখেন, জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুল হামিদ মিটুল,বগুড়া জেলা মোটর মালিক গ্রুপের সভাপতি শাহ আকতারুজ্জামান ডিউক, সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, জেলা মোটর মালিক গ্রুপের সহ সভাপতি তৌফিক হাসান ময়না জেলা ট্রাক মালিক সমিতির সভাপতি আব্দুল মান্নান মণ্ডল,যৌথ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন সরকার, জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সহ সভাপতি কামরুল মোর্শেদ আপেল, আব্দুল গফুর প্রাং, ক্রীড়া সম্পাদক শমসের আলী প্রমুখ।
এতে বক্তারা বলেন, যদি নদীর ঘাটে লঞ্চ চললে সমস্যা না হয়, তবে আমাদের গাড়ি চললে সমস্যা হবে কেন? একটা ঈদ চলে গেল। আমাদের যে দুঃখ, দুর্দশা তা কেউ ফিরে তাকায় নি ।
অথচ এ দেশে আমরাই সবচেয়ে বেশি রাজস্ব দেই। কিন্তু সেই শ্রমিকরা আজ অনাহারে অর্ধাহারে দিন কাটাচ্ছে। কিন্তু আমাদের দিকে কারো ফিরে তাকানোর সময় নেই । আমরা মনে করছি এটি আমাদের বৃহৎ সমস্যা ও দুঃখ জনক ব্যাপার ।

আজকে আমরা বাধ্য হয়ে ঈদের দিন অবস্থান কর্মসূচি নিয়েছি।

অবস্থান কর্মসূচি শেষে তারা পাচঁদফা দাবী তুলে ধরেন। তাদের দাবীর মধ্যে রয়েছে- ১. স্বাস্থ্যবিধি মেনে মােট আসনের অর্ধেক যাত্রী নিয়ে দূরপাল্লার পরিবহনসহ সব গণপরিবহন এবং স্বাভাবিক পণ্যবাহী পরিবহন চলাচলের সুযােগ করে দিতে হবে ।
২. লকডাউনের কারণে কর্মহীন সড়ক পরিবহন শ্রমিকদের ঈদের আর্থিক অনুদান ও খাদ্য সহায়তা প্রদান করা ।

বর্তমান সময়ে কেভীড১৯ মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে লকডাউনে গণপরিবহন বন্ধ থাকায় মালিকদের যানবাহন মেরামত, কর্মচারী ও শ্রমিকের বেতন, ভাতা ও ঈদ বােনাস ইত্যাদি দেওয়ার জন্য নামমাত্র সুদ ও সহজ শর্তে পাঁচ হাজার কোটি টাকা প্রণোদনা দিতে হবে।
৩. সারা দেশে বাস ও ট্রাক টার্মিনাল গুলােয় পরিবহন শ্রমিকদের জন্য আসন্ন ঈদের পূর্বে ও পরে ১০ টাকায় ওএমএসের চাল বিক্রির ব্যবস্থা করা।
৪. কোভিড-১৯ এর কারণে গণপরিবহন ব্যবসায় অর্থ বিনিয়ােগের বিপরীতে সব ব্যাংক ঋণ, আর্থিক প্রতিষ্ঠান ঋণ ও ব্যক্তি মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানের ঋণের সুদ সম্পূর্ণ ভাবে মওকুফ সহ কিস্তি চল‌তি বছ‌রের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত স্থগিত করতে হবে। পাশাপাশি ২ শতাংশ ডাউন পেমেন্ট নিয়ে শ্রে‌ণিকৃত ঋণগুলাে নিয়‌মিত করার সুযোগ দি‌তে হবে।
৫. লকডাউনে বন্ধ থাকার সময় গাড়ির ট্যাক্স-টোকেন, রুট পারমিট ফি, আয় করসহ সব ধরনের ফি, কর ও জরিমানা মওকুফ করে ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ পর্যন্ত কাগজপত্র হালনাগাদের সুযােগ করে দিতে হবে বলেও তারা জানিয়েছেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *