খাইরুল ইসলাম, গংগাচড়া প্রতিনিধি:
বাংলার চোখ গংগাচড়া থানা সংসদের
অভিষেক ও মতবিনিময় সভা ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত শনিবার (৯ জানুয়ারি ২০২১ইং) দিনব্যাপী গংগাচড়া উপজেলা পরিষদ হলরুমে উক্ত অভিষেক ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানের সূচনা লগ্নে পবিত্র কোরআন তেলোয়াত এবং ফুল দিয়ে পরিচিতি ও শুভেচ্ছা প্রদান করা হয়।
উক্ত সভায় বাংলার চোখ গঙ্গাচড়া থানা সংসদের নবনির্বাচিত তেত্রিশ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ও বিভিন্ন ইউনিয়নের সদস্যরা এতে অংশ নেয়।

বাংলার চোখ, গংগাচড়া উপজেলা সংসদ, এর সাধারণ সম্পাদক মােঃ গােলাম রববানী রতন এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, বাংলার চোখ, গংগাচড়া উপজেলা সংসদ এর সভাপতি মোঃ আহসানুল কাদির খান মিলন।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন,মাননীয় সংসদ সদস্য,রংপুর-১ও বিরােধী দলীয় চীফ হুইপ বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ এবং উপদেষ্টা বাংলার চোখ, আলহাজ্ব মসিউর রহমান রাঁঙ্গা
ও উপজেলা নির্বাহি অফিসার, তাসলিমা বেগম।
অনুষ্ঠানে প্রধান আলােচক হিসিবে উপস্থিত ছিলেন,বাংলার চোখ কেন্দ্রীয় সংসদ প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান, আলহাজ্ব মােঃতানবীর হােসেন আশরাফী ও
বাংলার চোখ উপদেষ্টা প্রফেসর মােঃ শাহ আলম।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন,গংগাচড়া উপজেলা চেয়ারম্যান বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ গংগাচড়া উপজেলা শাখার সভাপতি মােঃ রুহুল আমিন,অারো উপস্থিত ছিলেন,গংগাচড়া উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও গংগাচড়া প্রেসক্লাব সভাপতি মোঃসাজু আহমেদ লাল এবং গংগাচড়া উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মােছাঃ রাবিয়া বেগম।
অারো উপস্থিত ছিলেন,গংগাচড়া মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ,সুশান্ত কুমার সরকার ও ৪নং গংগাচড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃআল সুমন আব্দুল্লাহ।

আমন্ত্রিত অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলার চোখ,কেন্দ্রীয় সংসদ উপদেষ্টা ও (সাংবাদিক) মােছাঃ মেরিনা লাভলী,ও বাংলার চোখ, কেন্দ্রীয় সংসদের উপদেষ্টা,আলহাজ্ব মােঃ নুরুল হক মুন্না
এবং বাংলার চোখ কেন্দ্রীয় সংসদের প্রেসিডিয়াম সদস্য মােঃ আতিক উল্লাহ আতিক।
অারো উপস্থিত ছিলেন,বাংলার চোখ মহানগর সংসদের সভাপতি আলহাজ্ব মােঃ আবু জাফর লিটন ও সাধারণ সম্পাদক মােঃ ওমর ফারুক।
প্রধান অতিথি মশিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, বাংলার চোখ সংগঠনটি রংপুরের অন্যতম একটি সুপরিচিত সংগঠন। আগামী প্রজন্মকে সুন্দর ভাবে পরিচালিত করার জন্য এরকম সংগঠনের প্রয়োজন। মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মোবাইল ফোনের অপব্যবহার ইত্যাদি প্রতিরোধে সংগঠনটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।
উপজেলা নির্বাহি অফিসার, তাসলিমা বেগম বলেন, বাংলার চোখ একটি সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সংগঠন যেখানে সমাজের সব কিছুই রয়েছে।
গংগাচড়ায় যে কার্যকরী কমিটি গঠন করা হয়েছে সে বিষয়ে তিনি চোখ নিয়ে দুটি ব্যাখ্যা প্রদান করেন ১. একটি হলো মমতাময়ী অর্থাৎ প্রিয়সির কালো চোখ, যেখানে মায়া, মমতা, মমত্ববোধ
ভালোবাসা রয়েছে।
২. অপরটি হল রক্তচক্ষু যেখানে সমগ্র অন্যায়ের বিরুদ্ধে এই চক্ষুটি ব্যবহার করা হয়,আশা করি গঙ্গাচড়ার নবনির্বাচিত কমিটি দুটো দিকেই অবলম্বন করে চলবে।

বাংলার চোখ প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মােঃতানবীর হােসেন আশরাফী বলেন, মুক্তিযোদ্ধার চেতনা কে সম্মান জানিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর আহবানে প্রেমিকার হাত ছেড়ে, মায়ের আঁচল থেকে, বাবার আর্তনাদ থেকে সবকিছু ছেড়ে ত্যাগ করে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল মহান মুক্তিযুদ্ধে দীর্ঘ নয় মাস পাকিস্তানের বেনিয়া শক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করে পৃথিবীর ভূখণ্ডে আমাদেরকে মালিক বানিয়েছেন বাষট্টি হাজার বর্গমাইল। তাদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন, তাদের স্বপ্ন ছিল পুকুর ভরা মাছ থাকবে,গোয়াল ভরা গরু থাকবে, তাদের স্বপ্ন ছিল সবার জন্য শিক্ষা থাকবে। কিন্তু একটি ষড়যন্ত্র এই বাংলাদেশকে আবারো শকুনের মতো খামচে ধরতে চায়? আজকে দেশের মেরুদন্ড যুব সমাজকে ন্যায় এর পথে শিক্ষা দিতে ২০০৭ সালে এই সংগঠনের জন্ম হয়, এই সংগঠনের কাজ তানবীর হােসেন আশরাফী স্লোগান দেয়া নয়,তসবি গনা নয়, বাংলার চোখের কাজ মুমূর্ষু রোগীর জন্য রক্ত দেয়া, গরীব মেধাবী ছাত্র ছাত্রীর যদি অর্থের অভাবে ফরম ফিলাপ করতে না পারে তাকে সাহায্য করা। আলোকিত বাংলাদেশ গড়তে শিল্পকলা শিশু একাডেমী সহ বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করা এই সংগঠনের মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য।

Leave a Reply