বাগমারা (রাজশাহী)প্রতিনিধিঃ রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার হামিরকুৎসা ইউনিয়নের আলোকনগর গ্রামের ভবানাপাড়ায় একটি পুকুর খননের সময় একটি কালো পাথরের মূর্তি উদ্ধার করা হয়। খবর পেয়ে যোগীপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ মূর্তি উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

জানা যায়, হামিরকুৎসা ইউনিয়নের আলোকনগর গ্রামের ভবানাপাড়ায় স্থানীয় কয়েকজন অংশিদারের একটি পুকুর সংস্কারের জন্য ভেকু মেশিন দিয়ে খনন কাজ আরম্ভ হয়। মঙ্গলবার (৩০মার্চ) বিকেলে ভেকু চালক মাটি খননের সময় শক্ত বন্তুর সন্ধান পায়। পরে তা উঠিয়ে কালো পাথরের একটি ভাঙ্গা মূর্তি দেখতে পায়।

স্থানীয়রা জানান এটিকে রানী মূর্তি বলা হয়। তবে মূর্তিটি কষ্টি পাথরের কিনা তা পরীক্ষা না করে জানার উপায় নাই বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়। মূর্তিটি ভাঙ্গা অবস্থায় দেখে স্থানীয় লোকজনের মাঝে কৌতুহলের সৃষ্টি হয়। পরে পুলিশ মূর্তি উদ্ধারকারী আব্দুল হান্ন্নান ও পুকরের অংশিদারদের বাড়ি বাড়ি তল্লাশী করেও মূর্তির কোন অংশ পাওয়া যায়নি।ভাঙ্গা অবস্থাতেই পাওয়া যায় বলে আব্দুল হান্নানসহ ভেকু চালক জসিম উদ্দিন জানিয়েছেন। রাতে তল্লাশি শেষে পুলিশ মূর্তি নিয়ে যায়।

যোগীপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর কবির হোসেন জানান, খরর পেয়ে কালো পাথরের একটি ভাঙ্গা মূর্তি উদ্ধার করা হয়েছে। ভাঙ্গা থাকায় সন্দেহের সৃষ্টি হলে কয়েকজনের বাড়ি তল্লাশি করা হয় তবে কিছু পাওয়া যায়নি। মূর্তিটি কষ্টি পাথরের কিনা তা পরীক্ষা-নিরিক্ষা ছাড়া বলা যাচ্ছেনা বলে জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *