বাগমারা প্রতিনিধিঃ রাজশাহী বাগমারা উপজেলার শুভডাঙ্গা ইউনিয়নের ছিনতাই মামলার আসামীদেরকে নিয়ে বুধবার বিকালে (২৮ই এপ্রিল) মচমইল ডিগ্রি কলেজ মাঠে সালিশ বৈঠক চলছিলে। উক্ত মিমাংসার সালিশি বৈঠক চলমান থাকা অবস্থা বাগমারা থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ছিনতাই মামলার আসামী বারাইপাড়া গ্রামের মোঃ মোসলেম উদ্দিনের ছেলে মোঃ মান্নান (৩০), বিশুর ছেলে মোঃ বাহাদুর, মোঃ গাজির ছেলে মোঃ কাশেম, শুভডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ আঃ হাকিমের ছোট ভাই মোঃ আব্দুল মালেক (৩৫) ও মোঃশাহাদাৎ কে পুলিশ গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়। সালিশি বৈঠক চলমান ও পুলিশ আসামী গ্রেপ্তারে সময় উক্ত ছিনতাই মামলার মিমাংসার বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, বাগমারা উপজেলার আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অধক্ষ্য গোলাম সারওয়ার আবুল, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় ও কমিটির সদস্য পিএম,ডঃ শফিক, রাজশাহী জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি মাষ্টার মোঃ রিয়াজ উদ্দিন, মচমইল ডিগ্রি কলেজের অধক্ষ্য রানা প্রতিক দাস, শুভডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ সভাপতি মোঃ আঃ হাকিম, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আজহার আলী, মরিয়ম, মাজেদ, গোবিন্দপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আফজাল হোসেন সহ আরোও অনেকে। পুলিশের এ ধারনের অভিযান কে সাধারণ মানুষ ধিক্কার জানিয়েছেন। পাশাপাশি উপস্থিত নেতাকর্মীরা নিজেদেরকে অপমানিত ও লাঞ্ছিত বলে অভিমত ব্যক্ত করেছেন, এবং তারা বলেছেন বাগমারা এই প্রথম কোন সালিশি বৈঠক হতে আসামী গ্রেপ্তার করা হলো। এ ব্যাপারে বাগমারা থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) মোঃ মোস্তাক আহমেদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আসামীরা এলাকায় চিহ্নিত সূদ ব্যবসায়হি, চাঁদাবাজ ও ছিনতাইকারী হিসেবে পরিচিতি তারা বিভিন্ন অপকর্মের সাথে জড়িত এবং তাদের এসব অপকর্মের অভিযোগ প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে রয়েছে তাই পুলিশ আসামীদেরকে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *