বাগমারা( রাজশাহী)প্রতিনিধিঃ
রাজশাহী বাগমারা উপজেলার নরদাশ ইউনিয়নের বীর মুক্তিযোদ্ধা, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সময়ে ত্রাণ কমিটির চেয়ারম্যান ও নরদাশ ইউনিয়ন পরিষদের চার, চারবারের (৪) সফল চেয়ারম্যান দীর্ঘদিনের ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি বর্তমান উপজেলা আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য আলহাজ্ব আর কে, এম মোসলেম উদ্দীন মিয়ার তৃতীয় সন্তান অধ্যক্ষ গোলম শফি কামাল (বাবুল)।তিনিএবারে ইউপি নির্বাচনে রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার নরদাশ ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হিসেবে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে মনোনয়ন প্রত্যাশী। অধ্যক্ষ গোলাম শফি কামাল (বাবুল) ও তার পরিবার আওয়ামীলীগের দীর্ঘদিনের রাজনীতির লড়াকু সৈনিক। তার বড় ভাই অধ্যক্ষ গোলাম সারওয়ার আবুল নরদাশ ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ ও বর্তমান বাগমারা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক। তার ছোট ভাই নরদাশ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের চেয়ারম্যান মনোনয়ন প্রত্যাশী অধ্যক্ষ গোলাম শফি কামাল (বাবুল)। তিনি ২৬/১১/১৯৭৭ইং সালে আওয়ামীলীগ পরিবারে জম্ম গ্রহন করেন। তার পিতার হাত ধরে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে অনুপ্রবেশ করেন, একজন সৎ যোগ্য, সমাজ সেবক ব্যক্তি হিসেবে এলাকায় তার ব্যাপক পরিচিত রয়েছে। তিনি ছাত্র অবস্থায় থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতি শুরু করেন। স্কুল, কলেজে পড়া অবস্থায় তিনি দলীয় বিভিন্ন পদে ও অধিষ্ঠিত হয়েছেন। তিনি দুই দুইবার নরদাশ ইউনিয়ন ছাত্র লীগের সাবেক সভাপতি ছিলেন। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগ শাখার সাবেক কোষাধক্ষ ছিলেন। সাবেক সভাপতি ছিলেন নরদাশ ইউনিয়ন যুবলীগ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ছিলেন নরদাশ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ। এছাড়াও তিনি যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ছিলেন, বাংলাদেশ কারিগরি (বিএম) কলেজ অধ্যক্ষ সমিতি কেন্দ্রীয় কমিটি, ঢাকা। তিনি বর্তমান নরদাশ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্মানিত সদস্য রয়েছেন। তার নিজ এলাকাসহ বিভিন্ন এলাকার তার উন্নয়ন মুলক কাজকর্মে উৎসাহিত হয়ে তৃণমূল থেকে শুরু করে উপর পযার্য়ের মহল আনন্দিত। এই জন্য গত ২০১৬ সালের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ছিলেন। কিন্তু আওয়ামী লীগের আরেক জন বিদ্রোহী প্রার্থী থাকার কারণে বিএনপির প্রার্থী কাছে সে স্বল্প ভোটে পরাজয় বরণ করেন। এ ব্যাপারে স্থানীয় এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, অধ্যক্ষ গোলাম শফি কামাল (বাবুল) বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের নৌকার টিকিট যদি পায় অথবা মানেনীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা তাকে আবারো ও নরদাশ ইউপি নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন দেন তাহলে অবশ্যই তিনি জয় লাভ করবেন। এ ব্যাপারে নরদাশ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী অধ্যক্ষ গোলাম শফি কামাল (বাবুল) এর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমি গত নির্বাচনে অবশ্য জয় লাভ করতাম কিন্তু আমার দলের আরেকজন বিদ্রোহী প্রার্থী থাকার কারণে বিএনপির দূর্বল প্রার্থীর কাছে স্বল্প ভোটে পরাজয় বরণ করতে হয়। বর্তমান ইউপি নির্বাচন সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে তিনি আরও জানান, এবারে ইউপি নির্বাচনে মানোনীনয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে যদি নৌকার টিকিট দেন তাহলে জনগন অবশ্যই আমাকে অথাৎ প্রধানমন্ত্রীর নৌকাকে বিজয় করবেন ইনশাআল্লাহ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *