এস ইসলাম, নাটোর জেলা প্রতিনিধিঃ

নাটোরের বাগাতিপাড়ায় নিজ বাড়ির শয়নকক্ষ থেকে আবারো আরেক বৃদ্ধের রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি যৌথভাবে তদন্ত করছে পিবিআই ও বাগাতিপাড়া থানা পুলিশ। রোববার (৯ মে) রাতে উপজেলার দয়ারামপুর ইউনিয়নের সোনাপুর হিজলী দীঘাপাড়া থেকে বৃদ্ধের রক্তামাখা মরদেহ উদ্ধার করে বাগাতিপাড়া মডেল থানা পুলিশ।

মৃত কৃষক মেহের আলী ওরফে মোহর মোল্লা (৬০) উপজেলার দয়ারামপুর ইউনিয়নের সোনাপুর হিজলী দীঘাপাড়ার মৃত ইয়াদ মোল্লার ছেলে।

সরেজমিনে গিয়ে পুলিশ, স্থানীয় ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, পিতা-পুত্রের মধ্যে বিরোধ থাকার কারণে ওই বৃদ্ধ তার বাড়িতে একাই থাকতেন। রবিবার সকাল (আনুঃ) সাড়ে ৯টার দিকে তার পুত্রবধূর সাথে কথা বলেন ওই মৃত কৃষক। পুত্রবধূকে বিদায় দিয়ে নিজ ঘরের দরজা ভিতর থেকে বন্ধ করে ঘুমিয়ে পড়েন মৃত মেহের।

মৃতের মেয়ে মমতাজ জানান, দিন গড়িয়ে বিকেল হলেও অনেক ডাকাডাকি করে তার কোনো সারা না পেয়ে টিনের বেড়া কেটে ভিতরে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় তার মৃতদেহ দেখে চিৎকার দিলে স্থানীয়রা ছুটে আসে এবং মরদেহে রক্ত দেখে পুলিশে খবর দেয়।

বাগাতিপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাজমুল হক সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, স্থানীয় লোকজনের খবরে রোববার রাত ১০টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে নিজ ঘরের বিছানার ওপর থেকে কৃষক মেহের আলী ওরফে মোহর মোল্লার লাশ উদ্ধার করে রাত ১টার দিকে থানায় নিয়ে আসা হয়। পরে সোমবার (১০ মে) সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। স্ত্রী না থাকা ও পারিবারিক নানা বিষয়ে ছেলে আসকান মোল্লার সাথে বিরোধের কারণে একাই থাকতেন মোহর মোল্লা। বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করা হচ্ছে বলে জানান ওসি। এর আগে ৭ মে একই উপজেলার জামনগর পশ্চিমপাড়ার নিজ বাড়ি থেকে বৃদ্ধ দম্পতির রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করেছিল পুলিশ। সে ঘটনার রহস্য এখনো উদঘাটন হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *