ম.ম.রবি ডাকুয়া,বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ
বাগেরহাটের রামপালে (ডিবি)পুলিশের হাতে হরিণ শিকারী বাবা ছেলে আটক হয়েছে।এ সময় তাদের কাছ থেকে ৪২ কেজি হরিণের মাংস জব্দ করা হয়।মঙ্গল বার ভোরে বাগেরহাট গোয়েন্দা পুলিশ রামপাল উপজেলার বগুড়া চর থেকে তাদের আটক করে ।গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এই শিকরী চক্রকে আটক করতে সক্ষম হয় বলে জানিয়েছেন পুলিশ।
ঘটনার বিবরনে জানা যায় শিকারী চক্র দু দিন আগে সুন্দরবনে তিনটি হরিণ শিকার করে জবাই করে মাংস বিক্রীর জন্যে লোকালয়ে আনে।এমন খবরের ভিত্তিতে ঘটনা স্থলে অভিযান চালায় গোয়েন্দা পুলিশ। পরে ঘটনা স্থল থেকে মাংস সহ হাতে নাতে আব্দুর রহমান শেখ(৫২) ও তার পুত্র মোস্তাকিন শেখ(২৭)কে আটক করে এ সময় তাদের কাছ থেকে ৪২ কেজি হরিণের মাংস ও উদ্ধার করে।আটককৃত দুজনই রামপাল উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামে।তারা দুজনে চিহ্নিত ও পেশাদার হরিণ শিকারী বলে জানায় পুলিশ।আটক কৃতদের বন আইনে মানলা দিয়ে জেল হাজতে প্রেরণের প্রস্তুতি চলছে।
এর আগে রোববার ২২ কেজি হরিণের মাংস সহ আটকের ঘটনা ঘটার পর পর এ ধরনের ঘটনা ঘটে।এই ঘটনার আগের দিন শনিবার রাতে কোষ্ট গার্ড পশ্চিম জোন মোংলার দিগরাজ বাজারে অভিযান চালিয়ে ৪৭ কোজি হরিণের মাংস আটক করে তার তার আগে ২৩ জানুয়ারী ভোরে বাগেরহাটের শরণখোলা বাসষ্টান্ড থেকে গোয়েন্দা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ১৯ টি হরিণের চামড়া আটক করে।তার আগে ১৯ জানুয়ারী বনবিভাগ ও র্যাাব যৌথ অভিযানে বাগের চামটা আটক করে এ যেন এব সুন্দরবনের জন্যে ভায়াবহ অশনি সংকেত হিসেবে দেখছেন পরিবেশবিদ সহ স্থানীয় আপমোর জনতা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *