এস এম আদনান উদ্দিন, স্টাফ রিপোর্টার:
বাঙ্গালী জাতির অন্যতম উৎসব পহেলা বৈশাখ। এই দিনে বাঙ্গালীরা সাজে নতুন সাজে বরণ করে নেয় বাংলা বছরকে। স্বাগত জানায় নববর্ষকে। নানা আয়োজনে পালিত হয় দিনটি। পান্তা ভাত আর ইলিশ খাওয়ার ধুম পরে সারা বাংলায়।
এই দিনটিকে বরণ করতে বাংলার মেয়রা বিশেষ করে সাজে ভিন্ন রূপে।
তাই নারীদের মাঝে অনেকেই ভাবেন এই দিনে সাজটা বেশ জমকালো হওয়া উচিত। কিন্তু আসলেই কি তাই? চলুন জেনে নিই কীভাবে এই দিনে হালকা সাজ-পোশাকে নারী নিজেকে রাখতে পারেন পরিপাটি আর স্নিগ্ধ:

পোশাক:
বৈশাখ মানেই সাদা শাড়ি লাল পাড়। সাদাতে যেন নারীর স্নিগ্ধতা বেড়ে যায় আরও কয়েক গুণ। তবে আপনি চাইলে এই ট্রেন্ড থেকে বের হয়ে আসতে পারেন। পরতে পারেন লাল শাড়ি সাদা পাড়। সবার মাঝে আপনাকে এই পোশাকে একটু আলাদা লাগবে অবশ্যই। তবে অনেক নারী এখন পয়লা বৈশাখের পোশাক বাছাইয়ে লাল-সাদায় আটকে নেই। ভিন্ন ভিন্ন রঙ আর বৈচিত্র্যময় নানা নকশা এখন শোভা পাচ্ছে নারীর বসনে।

যেহেতু গরম কাজেই মাথায় রাখতে হবে আবহাওয়ার বিষয়টিও। এ ভাবনা থেকেই বাছাই করতে হবে পোশাক। গরমে সুতি পোশাকে সবচেয়ে বেশি আরাম পাওয়া যায়। তবে চাইলে সুতি খদ্দরের শাড়িও পরতে পারেন। এটি গরমে বেশ আরাম দেবে।

যদি শাড়িতে আরামবোধ না হয় পরে ফেলতে পারেন সালোয়ার কামিজ অথবা স্কার্ট। সালোয়ার কামিজ সাদা রেখে এর সাথে ওড়না হতে পারে একদম লাল অথবা চাইলে এর উল্টোটাও মানিয়ে যাবে বেশ। অর্থাৎ লালা সাদা কামিজের সাথে সাদা ওড়না। আর যদি স্কার্ট পড়তে চান তাহলে সেখানেও প্রাধান্য দিতে পারেন সাদা অথবা লাল যে কোনোটিকেই।

সাজ:

শাড়ির সাথে চুড়ি না থাকলে কি বাঙালি নারীর সাজ পূর্ণতা পায়? শাড়ির সাথে মিলিয়ে কিনে ফেলুন চুড়ি। দুই হাতেই সাধারণত চুড়ি পরা হয়। তবে সাজে ভিন্নতার জন্য আপনি এক হাতে চুড়ি পরতে পারেন। তাহলে কি অন্য হাত খালি থাকবে? একদম নয়! যেহেতু বৈশাখে বের হচ্ছেন কাজেই হাতে জড়িয়ে নিতে পারেন এক গাছি ফুল।

যেহেতু বাইরের আবহাওয়া কিছু সময় পরপরই বদলে যায় কাজেই এই সময়ের মেকআপ নিয়ে ভাবনাটা একটু বেশিই হতে পারে। তবে যেভাবেই নিজেকে সাজানো হোক না কেন অবশ্যই সাজের শুরুতে মুখটা ভালোভাবে পানি দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে। এরপর সানব্লক লাগিয়ে নিতে হবে। এটি বাইরের তাপ থেকে আপনার মুখের ত্বককে রক্ষা করবে। এখন অনেক মেকআপ ফাউন্ডেশনেই সান প্রোটেকশন দেওয়া থাকে। চাইলে সেগুলো ব্যবহার করতে পারেন।

মেকআপের বাহুল্য কমিয়েও নিজেকে স্নিগ্ধ রাখা যায়। চোখে ঘন মাসকারা আর আইলাইনারের সঙ্গে হালকা শ্যাডো। চাইলে ব্যবহার করতে পারেন কাজল। তবে গরমে ঘেমে কাজল নষ্ট হয়ে যাওয়ার ভাবনা থাকলে না লাগালেই ভালো হবে। আর সাজে পূর্ণতা পেতে ম্যাট কালারের লিপস্টিক লাগিয়ে ফেলুন শাড়ির রঙের সাথে মিলিয়ে।

পোশাকের সাথে মিলিয়ে চুলের সাজটাও হওয়া চাই ছিমছাম। আর এ জন্য চুলে খোঁপা করে নিতে পারেন। অনেকটা সময় তাজা থাকবে এমন ফুল বেছে নিয়ে খোঁপায় গুঁজে দিতে পারেন। আরামদায়ক পোশাক, খোঁপায় ফুল, হাতে চুড়ি আর হালকা সাজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *