মেছবাহুল আলম
ভুরুঙ্গামারী(কুড়িগ্রাম )প্রতিনিধি:

আগামী ১১ নভেম্বর (বৃহস্পতিবার) কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলার সাতটি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা মার্কার প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের যৌথসভায় ভূরুঙ্গামারীতে সাতটি ইউনিয়নের নৌকার মাঝি চূড়ান্ত করে তাদের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।

তারা হলেন- তিলাই ইউনিয়নে কামরুজ্জামান কামরুল, পাইকেরছড়া ইউনিয়নে বর্তমান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মো. ফারুক আহমেদ, জয়মনিরহাট ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক সাখাওয়াত হোসেন, আন্ধারিঝাড় ইউনিয়নে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মো. ফজলুল হক মন্ডল, বলদিয়া ইউনিয়নে ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক খাদেমুল ইসলাম খোকন, বঙ্গ সোনাহাট ইউনিয়নে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মায়নুল ইসলাম (লিটন) ও চর-ভূরুঙ্গামারী ইউনিয়নে এনামুল ইসলামকে (রোকন) নৌকা মাকার প্রার্থী হিসেবে চুড়ান্তভাবে মনোনীত করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন নির্ধারণে প্রতিটি ইউনিয়নের তৃণমূল পর্যায়ে ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড কমিটির প্রত্যক্ষ ভোটে প্রার্থী চুড়ান্ত করে ৬ অক্টোবর কেন্দ্রে পাঠায় ভূরুঙ্গামারী উপজেলা আওয়ামী লীগ। এতে তিলাই ইউনিয়নের ৩ বার মনোনয়ন পাওয়ার পরেও পরাজিত প্রার্থী আবুল হোসেনকে এবং ৯ নং চরভুরুঙ্গামারী ইউনিয়নের জাতীয় পার্টি থেকে নির্বাচিত বর্তমান চেয়ারম্যান এটিএম ফজলুল হক সরকারকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসাবে চুড়ান্ত করে তালিকা পাঠান হয়।

এতে তৃণমুল পর্যায়ের আওয়ামী লীগের মধ্যে চরম অসন্তোষ দেখা দেয়। বিভিন্ন সূত্র থেকে প্রাপ্ত তথ্য যাছাই বাছাই করে তিলাই ও চর-ভূরুঙ্গামারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থীতে পরিবর্তন আনে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ড।

Leave a Reply