স্টাফ রিপোর্টার:
পুলিশের চাকুরী দেওয়ার নামে মুক্তিযোদ্ধার ভুয়া সনদে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়া সঙ্গবদ্ধ চক্রের হোতা গত ২৫/০৩/২০২১ইং তারিখে মোঃ নাছির উদ্দিন মোল্লা, পিতা মোঃ হোসেন আলী, সাং- বাটিয়াখড়া, থানা বেড়া, জেলাঃ পাবনাকে সদর থানায় সিআইডি মোঃ আব্দুর রাজ্জাক পুলিশ পরিদর্শক নিরস্ত্র গ্রেফতার করে আদালতে সপর্দ করেন। বাদীর অভিযোগে উল্লেখ ১ নং আসামী মোঃ নাছির মোল্লা (৪৫), পিতা- হোসেন আলী, সাং- বাটিয়াখড়া, থানা বেড়া, জেলাঃ পাবনা ২নং আসামী মোঃ আজাদ হোসেন (৪০), পিতা- জামাল, সাং পুন্ডিরিয়া, থানা সাঁথিয়া, জেলা- পাবনা, ৩নং আসামী মোঃ আজমত (৪৫) পিতা- অজ্ঞ্যাত , সাং বাঘুটিয়া/বাওইটিয়া, উপজেলা/থানা- শাহজাদপুর, জেলা- সিরাজগঞ্জ। ০৮/১০/২০১৫ইং তারিখে অনুমান সময় রাত- ৮.৩০ মিনিটের দিকে ৩০/০৮/২০২০ইং তারিখে অনুমান বিকাল ৪.০০ টার দিকে অঙ্গীকারের স্থান পাবনা সদর থানাধীন সাধু পাড়া গ্রামের ২নম্বর স্বাক্ষী মোঃ মোক্তার হোসেনের বাড়ি বসে চক্রের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়। সেই ধারাবাহিকতায় বাদীর কন্যা মোছাঃ সুমি আক্তার ভুয়া মুক্তিযোদ্ধার সনদ দ্বারা চাকুরী হয়েছে মর্মে জানতে পারে। মোঃ সুজন শেখ বাদীর পুতরা মোঃ সুমন শেখ বাংলাদেশ পুলিশ কনস্টেবল পদে চাকুরী দিবে মর্মে আসামীগণ পুস্তাব করেন। এ ঘটনায় পাবনা সদর থানায় ৪০৬/৪২০/৩৪ দন্ডবিধি গুরুতর অপরাধ করেছে। সদর থানার মামলা নম্বর-জি.আর-৯০ তাং ৩১/১০/২০২০ ইং গ্রেফতারকৃত জালিয়াত চক্রের হোতা মোঃ নাছির মোল্লাকে রিমান্ডের আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *