মাগুরা প্রতিনিধি:
মাগুরা গত শনিবার (২৪ এপ্রিল) সদর উপজেলার বেলনগর দক্ষিণ পাড়া গ্রামে এমএম ইট ভাটায় অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগের কারণে মিজানুর রহমান নামে এক কৃষক বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মৃত্যু বরণ করেন। এ খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে পরবর্তীতে মাগুরা জেলা প্রশাসন ভাটাটি অবৈধ ঘোষণা করে বন্ধ করে দেন।

তারি ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) আনুমানিক ৩ টার দিকে মাগুরা পল্লী বিদুৎ অফিসে তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে দৈনিক আমার সংবাদ এবং the Daily voice of Asia মাগুরা জেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক মিরাজ আহম্মেদ এর উপর অতর্কিত হামলা চালায় মাগুরা জেলা পল্লী বিদ্যুতের ম্যানেজার রবীন্দ্রনাথ দাস এর দিক নির্দেশনায় স্টোর কিপার শাহিন হোসেনের ভাড়াটিয়াসহ অজ্ঞাত গুন্ডাবাহিনী।

মিরাজ আহমেদ জানান, তিনি আনুমানিক ৩ ঘটিকায় মাগুরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ম্যানেজার রবীন্দ্রনাথ দাসকে একাধিকবার মুঠোফোনে সাক্ষাতের চেষ্টা কারে ব্যর্থ হন।

এক পর্যায়ে তিনি ওখানে দাঁড়িয়ে স্টোর কিপার এর সামনে থেকে তামার কয়েল, বিদ্যুৎ ট্রান্সমিটার, বিদ্যুৎ এর খুঁটির ছবি ফুটেজ নিতে থাকেন এক সময় স্টোরকিপার শাহিন হোসেন সাংবাদিক মিরাজ আহমদকে বলেন রুমের ভিতরে আসেন ছবি ফুটেজ আমরা দিচ্ছি আলোচনা করি। বলা মাত্রই সাংবাদিকে নির্যাতনের জন্য জাপ্টে ধরে স্টোর রুমের মধ্যে নিয়ে আবদ্ধ করে এবং মারপিট করে এবং তার ধারণকৃত ভিডিও ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়। আর বলতে থাকেন এই এমন কোন সাংবাদিক আছে নাকি রে আমাদের তথ্য বাহিরে প্রচার করে শালাদের পুঁতে রেখে দেবো না। উচ্চ চিৎকার এর ফলে লোক জন ছুটে চলে আসে তা দেখে দৌড়ে পারায়ণ করে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা।

একপর্যায়ে মাগুরা জেলা পুলিশকে জানানো হলে তারা সাংবাদিক মিরাজ আহম্মেদ কে উদ্ধার করেন। তবে এ বিষয়ে উক্ত মাগুরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ম্যানেজমেন্ট গা ঢাকা দিয়েছেন।

উক্ত বিষয় ঘটনাগুলো মাগুরা পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের ভিতরে থাকা সিসি ক্যামেরায় ধারণকৃত আছে।

এবং এই বিষয়কে কেন্দ্র করে সাংবাদিক মিরাজ আহম্মেদ বৃহস্পতিবার বিকাল আনুমানিক ৪ টার দিকে মাগুরা সদর থানায় মাগুরা পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের জেনারেল ম্যানেজার রবীন্দ্রনাথ দাস সহ অজ্ঞাত ৬ জনের নামে অভিযোগ দাখিল করেন। তবে এ বিষয়ে মাগুরা জেলা পুলিশ বলেন, উক্ত ঘটনাটি পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে তদন্ত করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *