শ্রীপুর, গাজীপুর, প্রতিনিধিঃ

অদ্য ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ তারিখ ভোর ৫.৩০ ঘটিকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, টঙ্গী হতে ৩০ কেজি গাঁজা নিয়ে একটি মাদকের চালান গাজীপুরের মাওনা হয়ে ময়মনসিংহ যাচ্ছে।

উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১ এর এক আভিযানিক দল পোড়াবাড়ী ক্যাম্পের সামনে একটি চেকপোস্ট স্থাপন করে। সন্দেহজনক একটি ট্রাককে (ঢাকা মেট্রো ড ১৪-৩৫৮১) চেকপোষ্টে থামার জন্য ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ইং তারিখ সকাল ০৬.৩০ ঘটিকায় সংকেত দেওয়া হয় কিন্তু, ট্রাকটি সংকেত অমান্য করে চলে যায়।

এমতাবস্থায়, ঘটনাস্থলে উপস্থিত *র‍্যাব সদস্য বিপি নং-৯২১১১৪৮১০২ কনস্টেবল মোঃ ইদ্রিস মোল্লা (২৮), (গ্রাম ও ডাক-কেল্লাই, উপজেলা- ঘিওর, জেলা- মানিকগঞ্জ। মাতৃ ইউনিট – টাংগাইল জেলা পুলিশ)* ও সিনিয়র ডিএডি মোঃ গোলাম মোস্তফা মটর সাইকেল নিয়ে ট্রাকের পিছনে ধাওয়া করে। ট্রাকটি বাঘের বাজার পৌছে চলন্ত অবস্থায় ট্রাকের উপর হইতে, মটর সাইকেলের সামনে এক বস্তা গাঁজা ফেলে দেয়। এবং ধাওয়ারত র‍্যাব সদস্যদের হত্যার চেষ্টা করে। এমতাবস্থায় মটর সাইকেলের দ্বিতীয় আসনধারী ডিএডি মোঃ গোলাম মোস্তফা গাঁজা রাস্তা হতে সংগ্রহ করে উক্ত স্থানে থেকে যায়। ডিএডি মোঃ গোলাম মোস্তফাকে রেখে মটর সাইকেল চালক কনস্টেবল মোঃ ইদ্রিস মোল্লা (২৮) একাই ট্রাকের পিছনে অনুসরন করে এবং তার পিছনে র‌্যাবের একটি মাইক্রোবাসও ট্রাকিকে অনুসরন করতে থাকে। মটর সাইকেল নিয়ে কনস্টেবল মোঃ ইদ্রিস মোল্লা (২৮) গাজীপুর পার হয়ে ভালুকার দিকে কোকাকোলা ফ্যাক্টরীর বিপরীতে ৫/৬ কিঃ মিঃ এসে ট্রাকটির গতিরোধ করে। মাদকবাহী ট্রাক চালক, কনস্টেবল মোঃ ইদ্রিস মোল্লা (২৮)’কে হত্যার উদ্দেশ্যে চাপা দিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। ঘটনাস্থলেই কনস্টেবল মোঃ ইদ্রিস মোল্লা (২৮) মৃত্যু বরণ করেন এবং মটর সাইকেলটি দুমড়ে মুচড়ে যায়। ঘাতক ট্রাকটি সিডষ্টোর, ভালুকা, ময়মনসিংহ এলাকা হতে আটক করা হয় এবং ট্রাকটির ড্রাইভার ও হেলপার পালিয়ে যায়। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। ঘাতক ট্রাকটির ড্রাইভার ও হেলপারকে আটকের অভিযান চলমান রয়েছে। র‍্যাব ক্যাম্পে বিকাল ৫.৩০ ঘটিকায় জানাজা শেষে তার গ্রামের বাড়িতে মাদকের বিরুদ্ধে শহীদ, মোঃ ইদ্রিস মোল্লার লাশ প্রেরণ করা হবে।
সূত্র :- র‌্যাব-১, গাজীপুর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *