শূন্যতা
মাহী তানভীর

বিচ্ছেদের রক্তিম আভা সারা মুখে
সব ছাড়িয়ে পারাপার অজানার সুখে।
এসব শূণ্যতা গ্লানির দহন,
শরৎ এর মেঘ শুভ্রতাকে করে যেমন বহন।

কোকিলের গলায় নেই সেই গীত
সব তার ফেলে আসা নিদারুন অতীত।
পাথর ধুয়ে নেমে আসা সমুদ্রের জল,
বানভাসি মানুষ শক্ত করে ধরেছে পাথর,
সব তার মনের বল।

হারানো সুরের বিষাদ কাঁদন
নীড় হারা পাখিদের মায়ার বাঁধন।
নিষিদ্ধ রাত্রির নিকোষ কালো পাপ,
প্রকৃতি করবে না মাফ চিরদিনের অভিশাপ।

আত্মা তার ত্যাগী তাপস্বী বসুন্ধরায়
দেবীর সৌন্দর্য্য অসুরের যুদ্ধে হারায়।
সৃষ্টির উল্লাসে শিশির ঝরে,
জাগছে প্রভাত উষার আলো ঘরে ঘরে।

সর্বগ্রাসী চোরাবালি মরুর বুকে
তেপান্তরে আলোর ছায়া ম্লান বাঁচবে ধুঁকে ধুঁকে।
তাকে খুঁজেফিরি সুখতারার মিলনমেলায়,
উপবনে জোসনার সাথে জোনাকিরা আলো জ্বালায়।

কখন আবার সন্ধ্যা নামে হারানো গানে
সব কিছু বিসর্জন দিয়ে চেয়ে থাকবো তোমার মুখপানে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *