অনলাইন ডেস্ক:
মিয়ানমারে সামরিক অভ্যুত্থানের ঘটনায় এক জরুরি বৈঠকের বসতে যাচ্ছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ। গতকাল সোমবার নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যরা বৈঠকের বিষয়টি অনুমোদন দেন। আজ মঙ্গলবার এ বৈঠকে মিয়ানমারে নিযুক্ত জাতিসংঘের বিশেষ দূত ও সুইজারল্যান্ডের কূটনীতিক ক্রিস্টিন শ্রেনার বার্গেনার পরিস্থিতি নিয়ে বিবৃতি দেওয়ার কথা রয়েছে।

গতকাল সোমবার মিয়ানমারের সেনাবাহিনী এক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে রাষ্ট্রিয় ক্ষমতা দখল করেছে। গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত নেত্রী অং সান সু চি ও মিয়ানমারের প্রেসিডেন্টকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া আরো কয়েকজন শীর্ষ রাজনৈতিক নেতাকেও আটক করা হয়েছে।

এ ঘটনা আন্তর্জাতিক মহলে সমালোচিত হয়েছে। সু চির দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি গত বছরের নভেম্বরে নিরঙ্কুশ বিজয় অর্জন করে। তবে সেনাবাহিনী নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ তুলেছে।

ফেব্রুয়ারি মাস থেকে নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির দায়িত্বে রয়েছে যুক্তরাজ্য। এ সপ্তাহেই মিয়ানমারের সঙ্গে বৈঠকের পরিকল্পনা ছিল তাদের। তবে পরিস্থিতি বিবেচনা করে বৈঠকটি বাতিল করা হয়। আজ বৈঠকটি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হবে। এটি রুদ্ধদ্বার বৈঠক হবে বলেও জানানো হয়েছে। 

জাতিসংঘে নিযুক্ত যুক্তরাজ্যের দূত বারবারা উডওয়ার্ড জানান, তিনি আশা করছেন মিয়ানমার যতটা সম্ভব গঠনমূলক আলোচনার দিকে নজর দেবে। জনগণের ভোটের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করবে এবং বেসামরিক নেতাদের মুক্তি দেবে। এর আগে জাতিসংঘের মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক বলেন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের এক হয়ে কথা বলা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *