মো.সোহেল রানা, মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ মুন্সীগঞ্জ মুক্তারপুর সেতুর ঢাল থেকে সিপাহীপাড়ার দিকে একটি মালবাহী ট্রাক বেপরোয়াভাবে আসতে থাকে। এ সময় রাস্তায় চলন্ত অবস্থায় থাকা চারটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা, একটি মিশুক, একটি পিকআপকে ধাক্কা দেয়। পরে আরেকটি ট্রাকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়ে সড়কের পাশে ছিটকে পড়ে থেমে যায় ট্রাকটি। দুর্ঘটনায় ২০ জন আহত হন ।
স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। পথেই এক নারী মারা যান।
আহতরা হচ্ছেন,খোরশেদ ফকির (৭০), আফরাহিন (২৭), হাবিবা বেগম (৫০), তাছমিয়া আক্তার (৬), সিদ্দিকা বেগম (৩৫), পিয়ার হোসেন (৪০), সুমনস মিয়া, (৪০), মো. তামিম (১৮), নুসরাত আক্তার (১৮), লিটন সরকার (২৮), আলাউদ্দিন ছৈয়াল (৬৫), শরিফ হোসেন (৩০), মো. রুবেলসহ বাকিরা চিকিৎসাধীন আছেন। এদের মধ্যে পাঁচজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। দুজনকে ঢাকায় রেফার করা হয়েছে।
মুন্সীগঞ্জ সদর থানর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে চালক সঠিকভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে না পারায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। এতে এক নারী নিহত হয়েছেন। দুর্ঘটনাকবলিত গাড়িগুলোকে রাস্তা থেকে সরিয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক করা হয়েছে। আহতদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হামিদুর রহমান জানান, ঘাতক ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় কারও গাফলতি থাকলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এখন পর্যন্ত একজন নারী যাত্রী মারা গেছে বলে শুনেছি।

Leave a Reply