মো.সোহেল রানা, মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃর‌্যাবের প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকেই সমাজে বিশৃংখলা সৃষ্টিকারী, মাদক ব্যবসায়ী, জঙ্গী সন্ত্রাসী, অস্ত্র ব্যবসায়ী, ডাকাত, জলদস্যু, কালোবাজারী ও মানব পাচারকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ অব্যাহত রেখেছে। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল রাত আনুমানিক ২২.০৫ ঘটিকার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে

জানা যায় যে, মুন্সীগঞ্জ জেলার সদর থানাধীন পঞ্চসার জোর পুকুরপাড় গ্রাম এলাকায় কতিপয় ব্যক্তি মাদকদ্রব্য ক্রয়-বিক্রয় করিতেছে। এরুপ তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১, সিপিসি-১ এর কোম্পনী কমান্ডার স্কোয়াড্রন লীডার এ কে এম মুনিরুল আলম ও স্কোয়াড কমান্ডার মোঃ আবু ছালেহ দের নেতৃত্বে একটি চৌকস

আভিযানিক দল উল্লেখিত ঘটনা স্থলে মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে একই তারিখ রাত ২৩.১৫ ঘটিকার সময় নিম্মলিখিত মাদক ব্যবসায়ীদেরকে অবৈধ মাদকদ্রব্য দেশী ও বিদেশী মদ সহ গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতারকৃত ২জন হচ্ছে মোঃ সাইদুল মোল্লা (২৬), পিতা- জামাল মোল্লা, মাতা- সালেহা বেগম, গ্রাম+থানা-

কলাপাড়া, জেলা- পটুয়াখালী এ/পি পঞ্চসার জোর পুকুর পাড় (রতন শেখ এর বাসার ভাড়াটিযা) থানা- মুন্সীগঞ্জ সদর, জেলা- মুন্সীগঞ্জ

ও মোঃ রবিউল সিকদার (২২), পিতা- মোহাম্মাদ সিকদার, মাতা- লিপি বেগম, গ্রাম- জোগখালী, থানা বেতাগী, জেলা- বরগুনা, এ/পি পঞ্চসার দয়াল বাজার পালপাড়া, (তোফাজ্জল হোসেন এর বাসার ভাড়াটিযা) থানা- মুন্সীগঞ্জ সদর, জেলা- মুন্সীগঞ্জ

উদ্ধারকৃত মালামাল হচ্ছে বিদেশী মদ ৫ বোতল (৫ লিটার)। দেশী মদ ২ বোতল (২ লিটার)। মাদকদ্রব্য বিক্রয়ের কাজে ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ২ টি।

বর্ণিত মাদক ব্যবসায়ীরা দীর্ঘদিন যাবৎ সদর থানা সহ মুন্সীগঞ্জ জেলার বিভিন্ন স্থানে মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসছে। তারা এলাকায় মাদক ব্যবসার সক্রিয় সদস্য বলে স্থানীয় লোকদের কাছে জানা যায়।

উক্ত মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে মুন্সীগঞ্জ জেলার সদর থানায় মাদকদ্রব্য আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি জানানো হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *