শেখ মো.সোহেল রানা, মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ মুন্সীগঞ্জ শ্রীনগরে আওয়ামী লীগ নেতা স্বপন রায়ের বিরুদ্ধে সরকারী জায়গা দখলের পায়তারার অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে অজ্ঞাত কারনে শ্রীনগর সহকারী কমিশনার( ভুমি) কর্মকর্তা কেয়া দেবনাথ উদাসীন দায়িত্ব পালন।
শনিবার(২৪ এপ্রিল) সকাল ১০ টার দিকে উপজেলার ষোলঘর হাই স্কুল মাঠের পূর্ব পাশে পশ্চিম দেউলভোগ মৌজার ৪৬৪ দাগের উত্তর পাশের দাগবিহীন ১৬ শতাংশ সরকারী জমি দখল করে টিনের বেড়া নির্মান করা হয় আওয়ামী লীগ নেতা স্বপন রায় ও তার ভাই ভাতিজা কর্তৃক।
সরে জমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার ষোলঘর হাই স্কুলের পূর্ব পাশে পশ্চিম দেউলভোগ মৌজার আর এস ৪৬৪ দাগের উত্তর পাশের দাগবিহীন ১৬ শতাংশ সরকারী সম্পত্তিতে ষোলঘর গ্রামের মৃত হরিপদ রায়ের ছেলে জেলা যুবলীগের সহ- সভাপতি ও শ্রীনগর উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি স্বপন রায়সহ তার ভাই গোবিন্দ রায় ও তার ছেলে সিধু আরো লোকজন দিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ ঐ দাগবিহীন সরকারী সম্পত্তি দখল করার পায়তারা করে আসতেছিল। এ ব্যাপারে স্থানীয়রা একাধিকবার শ্রীনগর সহকারী কমিশনার( ভুমি) কেয়া দেবনাথকে জানালেও তিনি বিষয়টি দেখছি দেখছি বলে উদাসীন মনোভাব পোষন করে। ঘটনার দিন সকালে আওয়ামী নেতা স্বপন রায় তার লোকজন দিয়ে উক্ত সরকারী সম্পত্তি দখল করার উদ্দেশ্যে টিন দিয়ে বেড়া নিমার্ণ করে।
এব্যাপারে আওয়ামী লীগ নেতা স্বপন রায়ের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এই সম্পত্তি আমার। এই সম্পত্তি সরকারের নয়। ভুমিদুস্যু আওয়ামী লীগ নেতা স্বপন রায় ইতিপূর্বে ষোলঘর মৌজার ১৫৪৩ ও ১৫৪৫ দাগের সরকারী খাস সম্পতি দখলে করে নিয়েছে।
এ নেতা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের পদে থেকে সরকারী অনেক সরকারী সম্পত্তি দখল করে নেয়। গত কয়েক বছর পূর্বে ষোলঘর মন্দিরের নামে থাকা সালে পুর মৌজার একটি সম্পত্তি দখল করে নিয়েছে।

এব্যাপারে শ্রীনগর সহকারী কমিশনার( ভুমি) কেয়া দেবনাথের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি বিষয়টি জানতে পেরেছি। লোক পাঠিয়ে ব্যবস্থা নিচ্ছি।

এব্যাপারে শ্রীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণব কুমার ঘোষের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এই বিষয়ে আমার জানা নেই। আমি জেনে ব্যবস্থা নিচ্ছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *