শফিকুল ইসলাম
মোহনপুর(রাজশাহী) প্রতিনিধিঃ

রাজশাহীর মোহনপুরে যুবলীগ নেতা আশরাফুল আলমকে হত্যাচেষ্টা মামলার আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও পুলিশ তাদের গ্রেফতার করছে না। মামলা দায়ের প্রায় এক মাস হতে গেলেও মোহনপুর থানা পুলিশ অজ্ঞাত কারণে এসব আসামীদের গ্রেফতার করছে না। একই সাথে মামলা দায়ের পর থেকে অব্যাহত হুমকির মুখে মামলার বাদি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। এমনকি মামলা তুলে নিতে এবং মিথ্যা মামলা দিয়ে বাদিকে ফাঁসাতেও আসামী পক্ষ তৎপর হয়ে উঠেছে। শুধু মামলার বাদিকেই নয়, স্বাক্ষীদের নিয়মিত ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে। এব্যাপারে মোহনপুর থানায় একটি অভিযোগ দেয়া হলেও পুলিশ কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। আশরাফুল আলম ধুরইল ইউপি যুবলীগ সভাপতি।
জানা যায়, জমি জমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে ৭ জুলাই বুধবার দুপুরে নিজ বাড়ীর কাছে জলাশয়ে কচুরিপানা পরিস্কার শেষে যুবলীগ নেতা আশরাফুল আলম বাড়ি ফেরার পথে একই এলাকার মুকুল হোসেনসহ তার ২৫/৩০ জনের সংঘবদ্ধ একটি দল দেশীয় ও আগ্নেয় অস্ত্র নিয়ে তার উপর হামলা চালায়। মুকুল ও তার দলবল আশরাফুলকে লোহার রড দিয়ে এলোপাথাড়িভাবে মারপিট ও হাসুয়া দিয়ে কুপিয়ে আহত করে। তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ধারালো হাসুয়া দিয়ে শরীরের বিভিন্নস্থানে কোপায়। এতে আশরাফুল গুরুত্বর আহত হন। পরে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আশরাফুলের অবস্থার অবনতি হলে তাকে গত ১৩ জুলাই ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব নিউরো সাইন্স হাসপাতাল ঢাকায় স্থানান্তর করেন চিকিৎসকরা। সেখান থেকে তাকে ডাক্তারের পরামর্শে সিরাজ খালেদা মেমোরিয়াল ক্যার্ন্টমেন্ট বোর্ড জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে ১৫ জুলাই তার মাথায় সফল অস্ত্রপাচার করা হয়। হামলার পর বর্তমানে আশরাফুল স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা ও স্পষ্ট ভাষায় কথা বলতে পারে না। এদিকে এ ঘটনায় আশরাফুলের বড় ভাই সোহরাব হোসেন বাদি হয়ে ১১ জনের নাম উল্লেখসহ আরো ও ১৫/২০ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে মোহনপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার পর পুলিশ জাহাঙ্গীর নামে একজনকে আটক করে। আর বাকি আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও থানা পুলিশ তাদের গ্রেফতার করছে না। এতে আশরাফুল আলম তার পরিবার নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।

এ ব্যাপারে মোহনপুর থানা ওসি তৌহিদুল ইসলাম বলেন, থানায় মামলা হওয়ার পর থেকে ওই এলাকায় পুলিশি টহল ও পলাতক আসামীদের গ্রেফতার করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। খুব শীঘ্রই আসামীদের গ্রেফতার করতে আমরা সক্ষম হবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *