খায়রুল,গংগাচড়া, (রংপুর) প্রতিনিধি:

রংপুরের মিঠাপুকুরে দুইটি যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ৬ জন নিহত। আহত হয়েছে দুই বাসের অন্তত ৪০ জন যাত্রী।

রোববার (১৮ জুলাই) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে মিঠাপুকুর উপজেলার বলদীপুকুর বাস স্ট্যান্ড এর কাছাকাছি ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

রংপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক একেএম সামসুজ্জোহা দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় নিহত হয়েছে ৬জন এবং আহত হয়েছে কমপক্ষে ৪০ জন। আহতদের উদ্ধার করে মিঠাপুকুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ জানায়, সকাল ৮ টার দিকে রংপুর থেকে জোয়ানা পরিবহন নামে একটি যাত্রীবাহী বাস ঢাকার উদ্দেশে যাচ্ছিল। অপরদিকে বিপরীত দিক থেকে সেলফি পরিবহন নামে একটি যাত্রীবাহী বাস আসছিল। বাস দুটি রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার বলদিপুকুর নামক স্থানে পৌঁছালে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে দুই বাসের সামনের অংশ দুমড়ে মুচড়ে যায়।

ঘটনাস্থলেই সেলফি পরিবহনের ড্রাইভার সহ ৬ জন নিহত হয়। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এবং পুলিশ প্রশাসন দ্রুত ঘটনা স্থলে গিয়ে উদ্ধার অভিযান শুরু করে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা জানিয়েছে, দুই গাড়ির বেশির ভাগ যাত্রী আহত হয়েছে। তবে এদের মধ্যে ৫ জনের অবস্থা একেবারেই আশঙ্কাজনক মৃত্যুর সংখ্যা বাড়তে পারে।

মিঠাপুকুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাকির হোসেন জানান, বাস দুটি মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়ে মহাসড়কের দুই ধারে ছিটকে পড়ে। এতে মিঠাপুকুর থানা পুলিশ, হাইওয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়। দুর্ঘটনায় নিহত কারোই তাৎক্ষনিকভাবে পরিচয় পাওয়া যায় নাই।

দুর্ঘটনার পর ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে এক ঘণ্টারও বেশি সময় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে থানা পুলিশের হস্তক্ষেপে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা যায়, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী বাস সেলফি পরিবহনের সঙ্গে রংপুর থেকে ঢাকাগামী জোয়ানা পরিবহনের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এতে সেলফী পরিবহনের চালকসহ ঘটনাস্থলেই ছয়জন মারা যায়। আহত হয়েছে অন্তত ৪০ জন। আহতদের উদ্ধার করে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *