মিরু হাসান বাপ্পী
আদমদিঘী (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ

প্রতি ঘণ্টা বা আধ ঘণ্টায় নয়, সন্ধ্যা থেকে সকাল পর্যন্ত কালক্ষেপণ না করেই চলছে বিদ্যুতের এ আসা-যাওয়ার খেলা। গত রোববার রাত থেকেই চলছে আজব খেলা, এ যেন বিদুৎ এর রাত কানা রোগ সন্ধ্যা হলেই উধাও বিদুৎ। গত রোববার সন্ধার পর থেকে সোমবার ভোর এবং সোমবার সন্ধা থেকে মঙ্গলবার ভোর পর্যন্ত বিদ্যুতের এই বিরম্বনার মধ্য দিয়ে সময় কেটেছে সান্তাহার শহর ও ইউনিয়নবাসীর। হঠাৎ করেই গত দুই দিন যাবৎ সন্ধ্যা হলেই বিনা নোটিশে চলছে বিদুৎ এর এই অতিষ্ঠ যন্ত্রনা দায়ক লোডশেডিং, পৌর শহরের আবাসিক বাণিজ্যিক সহ প্রতিটি জায়গায় এখন বিদ্যুৎ নিয়ে এমন হতাশা শুরু হয়েছে। প্রচন্ড গরমে এলাকার মানুষকে দুঃসহ যন্ত্রণায় পড়তে হচ্ছে। আবার কল কারখানার চাকাও বন্ধ থাকছে। সান্তাহার পৌর এলাকার বাসিন্দা এমডি নয়ন হোসেন বলেন, রমজান মাসে বৃদ্ধ মা, বাবা রোজা রাখে সেহরী করে নামাজ পড়ে। মধ্য রাতে এ রকম করে লোড শেডিং হইলে কিভাবে চলে, আর ৩০ মিনিটে প্রায় ৪ থেকে ৫ বার বিদুৎ আসছে আবার চলে যাচ্ছে যা বাড়ির ইলেকট্রিক/ইলেকট্রনিক জিনিস নষ্টের জন্য যথেষ্ট। সান্তাহার এলাকায় এমন বিদুৎ সার্ভিস অত্যন্ত হতাশাজনক।
এই বিষয়ে বিদ্যুৎ বিতরণ বিভাগ নেসকো লিঃ সান্তাহার, বগুড়া এর নির্বাহী প্রকৌশলী রোকনুজ্জামান এর কথা বললে জানায়, যান্ত্রিক ক্রটির কারণে এমন লোডশেডিং হয়েছিলো, আমাদের বিদ্যুৎ কর্মীদের অক্লান্ত পরিশ্রমে মঙ্গলবার থেকে তা ঠিক করা হয়। আশা করা যায় পরবর্তীতে এমন সমস্যা আর হবে না। আমরা নিজেরাও চাই গ্রাহক ভোগান্তি কমাতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *