নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে দিনদুপুরে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে জোর করে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় স্থানীয় শাহিনুর আলীসহ অজ্ঞাত ২-৩ জনকে আসামি করে একটি মামলা করা হয়েছে। 

ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ বাদী হয়ে শুক্রবার যাত্রাবাড়ী থানায় মামলাটি করেছেন। পরে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। ওই গৃহবধূ এখন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি রয়েছেন। ঘটনার পর ধর্ষক ও তার সহযোগীরা গা ঢাকা দিয়েছে।
 
মামলার এজাহারে ভুক্তভোগী উল্লে­খ করেন, ১০ বছর আগে তার বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তার একটি পুত্র ও একটি কন্যা সন্তান আছে। গত এক বছর ধরে স্থানীয় শাহিনুর তাকে প্রেম নিবেদনের পাশাপাশি নানাভাবে বিরক্ত করত। এক মাস আগে তার স্বামী বিদেশে যাওয়ার পর শাহিনুর অধিকতর উগ্র হয়ে পড়ে। তাকে অধিকমাত্রায় বিরক্ত করতে শুরু করে। গত ১২ ফেব্রুয়ারি দুপুরে ব্যক্তিগত কাজে তিনি পশ্চিম শেখদি হযরত খাজা সাহের রোডের বাসা থেকে যাত্রাবাড়ী যাচ্ছিলেন। তিনি ভাঙ্গা প্রেস এলাকার ইত্তেফাক হাউজের সামনে পৌঁছামাত্র শাহিনুরসহ ওতপেতে থাকা আসামিরা তাকে জোর করে একটি সিএনজিতে তুলে। পরে শাহিনুরের বাসায় নিয়ে ভয়-ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করে। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই সোহেল রানা বলেন, ঘটনার পর থেকেই আসামিরা পলাতক আছে। ইতোমধ্যে অজ্ঞাত আসামিদের নাম-ঠিকানা সংগ্রহ করেছি। শাহিনুরসহ অজ্ঞাত আসামিদের ধরতে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চলছে। আশা করছি, দ্রুতই তাদের আইনের আওতায় আনতে পারব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *